প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাংলাদেশের তিনটি অর্থনৈতিক অঞ্চলে ভারতকে বিনিয়োগের আহ্বান

মাছুম বিল্লা: চট্টগ্রামের মিরসরাই, খুলনার মংলা ও কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় অবস্থিত বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে (এসইজেড) ভারতীয়দের বিনিয়োগের জন্য আহ্বাজন জানিয়েছেন কলকাতায় নিযুক্ত বাংলাদেশের ডেপুটি হাইকমিশনার তৌফিক হাসান এবং বাংলাদেশের ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতারা।

কলকাতায় গত বুধবার ভারতের ব্যবসায়ীদের সংগঠন সিআইআই এর ইস্ট ইন্ডিয়া সামিটে তিনি এ আহ্বান জানান। ‘ইন্দো-বাংলাদেশ ট্রান্সপোর্ট সিনার্জিজ ফর জেনারেশন অফ সিমলেস বিজনেস এনভায়রনমেন্ট’ শীর্ষক একটি অধিবেশনে তৌফিক হাসান বলেন, বাংলাদেশ বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোতে (এসইজেড) বিনিয়োগের জন্য বিভিন্ন প্রণোদনা দিচ্ছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতির একটি দেশ, ২০২০ সালে জিডিপির পরিপ্রেক্ষিতে ৪৩ তম স্থানে রয়েছে এবং ২০৫০ সালে তা ২৩ তম হওয়ার পূর্বাভাস দিয়েছে। এই সামিটে বাংলাদেশের ব্যবসায়ী সংগঠনের প্রতিনিধিরা দৃঢ়তার সঙ্গে বলেছেন যে ভারত এবং বাংলাদেশের মধ্যে নির্বিঘ্ন পরিবহন সংযোগ দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্যকে শক্তিশালী করবে।

ভারত-বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি, আবদুল মাতলুব আহমদ, ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বারস অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের ভাইস-প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ আমিন হেলালী এবং শরোথি এন্টারপ্রাইজের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মতিয়ার রহমান বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে পরিবহন ইন্টিগ্রেশন চুক্তির উপযোগিতার বিষয়ে একমত হয়েছেন।
তারা উল্লেখ করেছেন যে এই ধরনের চুক্তিগুলি একটি সীমান্তের সামঞ্জস্যপূর্ণ পরিবহন বাজার তৈরি, স্থানীয় বাজারগুলিকে আঞ্চলিক করিডোরের সাথে সংযুক্ত করা এবং রপ্তানিমুখী মূল্যমানের শৃঙ্খলে সরবরাহের বাধা দূর করার দিকে একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপের প্রতিনিধিত্ব করে।

তারা বলেন, বিশেষ করে ভারত এবং বাংলাদেশের মধ্যে সহযোগিতার লক্ষ্য হওয়া উচিত সম্পদকে সর্বোত্তমভাবে ব্যবহার করা যাতে পুরো অঞ্চলে সর্বাধিক কল্যাণ হয়।

ইস্ট ইন্ডিয়া সামিটে বাংলাদেশের প্রতিনিধিরা বাণিজ্য ও ব্যবসার বিভিন্ন ক্ষেত্রে ভারত-বাংলাদেশের প্রতিযোগিতা বৃদ্ধির জন্য অবকাঠামোতে উচ্চতর বিনিয়োগ দ্বারা সমর্থিত সামগ্রিক জাতীয় লজিস্টিক উন্নয়ন নীতি প্রণয়নের জন্য সিআইআই-এর সাথে সহযোগিতার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

সর্বোচ্চ পর্যায়ের নিবিড় তত্ত্বাবধানে বাস্তবায়িত করার লক্ষ্যে একটি ‘ক্রস বর্ডার লজিস্টিক মাস্টারপ্ল্যান’ লক্ষ্যবস্তু, সমন্বিত এবং সময়সীমার মধ্যে গড়ে তোলার জন্য বাংলাদেশ পরামর্শক সংস্থা হিসেবে সিআইআই সহায়তার আহ্বান জানিয়েছে। সূত্র: ইন্ডিয়া ব্লুমস।

সর্বাধিক পঠিত