প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

এমন সুন্দর করে কথা বলতে পারা মন্ত্রী পাইনি

কামরুল হাসান মামুন, ফেসবুক থেকে, ভারতের দৈনিক “the Hindu” পত্রিকার রিপোর্ট অনুসারে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী সেই দেশের ইংলিশ মিডিয়াম শিক্ষাকে এক হাত নিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী খান বলেছেন ইংরেজি মাধ্যমের শিক্ষা “দেশি বিলাতি” তৈরী করছে। একদম ঠিক বলেছে। আমি অনেকদিন যাবৎই বিষয়টি নিয়ে বলে আসছি এই মাধ্যমে রপ্তানিযোগ্য শিক্ষার্থী তৈরী করছে। এত বছরের ইংরিজি মাধ্যমের শিক্ষা এখনো একজন ভালো ইংরেজি ভাষার সাংবাদিক, খেলার ধারা ভাষ্যকার, টেলিভিশনের সংবাদ পাঠক বা পাঠিকা ইত্যাদি তৈরী করতে পারেনি। এই মাধ্যমে যারা পড়ছে তারা ইংরেজি মাধ্যম না পড়লে এদের অনেকেই দেশের কবি সাহিত্যিক হতো। আমরা কি পাচ্ছি এমন কাউকে? একটি দেশের প্রভাবশালীদের সন্তানরা যদি বিদেশী ভাষায় পড়ে সেখানে বাংলা মিডিয়াম অবহেলিত হওয়াটাই স্বাভাবিক।

গত কয়েকদিন যাবৎ আফগানিস্তান বিশ্বের গণমাধ্যমের কেন্দ্রে। সিএনন, আলজাজিরার আফগানিস্তানের আফগান রিপোর্টারদের রিপোর্ট কিংবা সাধারণ মানুষের সাক্ষাৎকার শুনে মনে হচ্ছে তাদের ইংরেজি আমাদের চেয়ে ভালো। এর আগেরবার ৯০ এর দশকেও আফগানিস্তান যখন ফ্রন্টলাইনে তখন আফগানিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল্লাহ আব্দাল্লাহ সাক্ষাৎকার সিএননে প্রচারিত হতো। আমার মনে হতো আমরা কোনদিন এমন সুন্দর করে কথা বলতে পারা মন্ত্রী পাইনি। তখন পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রীর সাক্ষাৎকারও নেওয়া হতো। তার নাম ভুলে গেছি কিন্তু সেও তুখোড় বক্তা ছিল। প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান নিজেও একজন সুবক্তা। স্বাভাবিক। কারণ তিনি অক্সফোর্ড গ্রাজুয়েট।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত