প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জুরিখে সপ্তম ইরানি ফিল্ম ফেস্টিভালে এ্যাওয়ার্ড পেল ‘পারি’

রাশিদ রিয়াজ : ইরানি পরিচালক সিয়ামাক এতেমাদি পরিচালিত ‘পারি’ চলচ্চিত্রটি সেরা চলচ্চিত্র হিসেবে গোল্ডেন সাইরাস সিলিন্ডার এ্যাওয়ার্ড পেয়েছে। চলচ্চিত্রে বাবাক নামে এক ইরানি ছাত্র গ্রিসে পড়াশুনা করার সময় এ্যাথেন্স এয়ারপোর্টে তার বাবা-মা’কে স্বাগত জানাতে পারেননি। পারি ও তার বৃদ্ধ স্বামী, উভয়ই বিদেশে ধর্মপ্রাণ মুসলমান এবং প্রথমবারের মতো বিদেশে ভয়ঙ্কর এবং ভিনগ্রহ পরিবেশে তাদের ছেলের সন্ধান করতে প্রস্তুত ছিল না। এমন কোনও ক্লু খুঁজে তারা পায়নি। শেষমেষ গ্রিসে ছেলেকে না পেয়ে তারা ইরান ফিরে আসার পরেও ছেলের সন্ধানের চেষ্টা চালিয়ে যেতে থাকেন। পারি তার বিদ্রোহী ছেলের পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করে, তিনি তার নিখোঁজ ছেলের জন্য মায়ের অনুসন্ধানের চেয়ে আরও বেশি অর্জন করার জন্য তার অভ্যন্তরীণ শক্তি নিঃশেষ করেন। জুরিখে মাহদিহে ভালিজাদেহ পরিচালিত ‘এ স্ট্রেঞ্জার ইন প্যারিস’ চলচ্চিত্রটি রানার আপ হয়েছে। এ চলচ্চিত্রে একজন ইরানি সঙ্গীত শিল্পীর জীবনকাহিনী তুলে ধরা হয়েছে। যিনে ফ্রান্সে চলে যান। কিন্তু সেখানে তাকে ট্যাক্সি ড্রাইভার হিসেবে জীবন যাপন করতে হয়। জুরিখ ফিল্ম ফেস্টিভালে বিচারকদের বোর্ডে ছিলেন বারবারা মিলার, এ্যানিনা ফুরের, গার্টাড পিনকাস, জোয়েল জেন্ট এবং ভেরোনিক গ্রে। ফেস্টিভালে সেরা স্বল্পদৈর্ঘ চলচ্চিত্র হিসেবে পুরস্কার পায় আজাদেহ মুসাভির ‘দি ভিজিট’। এ চলচ্চিত্রে ৬ মাস পর এলাহে নামে এক নারী তার স্বামীকে কারাগারে দেখার সুযোগ পান। আর রানার আপ স্বল্পদৈর্ঘ চলচ্চিত্র হিসেবে পুরস্কার পায় রেজা ফাহিমির ‘হোয়াইট ক্লাড’।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত