প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুট দীর্ঘ ৪৯ দিন পর দুরপাল্লার বাস, ট্রেন ও লঞ্চ চলাচল শুরু, স্বস্তিতে যাত্রীরা

কামাল হোসেন:[২] করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে নতুন করে বিধিনিষেধের মেয়াদ বাড়লেও সোমবার (২৪ মে) সকাল ৬টা থেকে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে সরকারি নির্দেশনা মেনে দূরপাল্লার বাস, ট্রেন এবং অর্ধেক যাত্রী নিয়ে লঞ্চ চলাচল শুরু করেছে।

[৩] করোনা ভাইরাস সংক্রমণ উদ্বেগজনক হারে বাড়তে থাকায় গত ৫ এপ্রিল সকাল ৬টা থেকে বিধিনিষেধের বেড়াজালে দূরপাল্লার বাস, লঞ্চ ও ট্রেন চলাচলের নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হয়েছে রোববার (২৩ মে) মধ্যরাতে। সোমবার সকাল ৬টা থেকে শুরু হয় দুরপাল্লার বাস, ট্রেন ও লঞ্চ চলাচল। তবে লকডাউন পালনের ক্ষেত্রে নতুন করে জুড়ে দেয়া হয়েছে ১৩টি সরকারি নির্দেশনা ।

[৪] এদিকে দীর্ঘ ৪৯ দিন পর দুরপাল্লার বাস, ট্রেন ও লঞ্চ চলাচল স্বাভাবিক হওয়ায় স্বস্তি দেখা দিয়েছে লঞ্চ মালিক-শ্রমিক, হকার্স ও সাধারণ যাত্রীদের মধ্যে।সরেজমিনে দৌলতদিয়া লঞ্চঘাট, ফেরিঘাট ও রেলস্টেশন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, লঞ্চগুলো অর্ধেক যাত্রী নিয়ে দৌলতদিয়া ঘাট থেকে পাটুরিয়ার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাচ্ছে।

[৫] এদিকে ফেরি ঘাটে যাত্রীবাহী পরিবহনের সাড়ি দেখা গেছে এবং পরিবহন গুলোতে অর্ধেক যাত্রী নিয়ে ঢাকার দিকে যাচ্ছে। রেল স্টেশন গিয়ে দেখা যায় খুলনা স্টেশন থেকে নকশিকাঁথা মেইল ট্রেনটি গোয়ালন্দ ঘাটে আসে এরপর এখান থেকে রাজবাড়ী হয়ে কুষ্টিয়ার পোরাদহ ও খুলনার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়। ট্রেন চলাচলের প্রথম দিনেই যাত্রীদের ভীড় লক্ষ করা যায়।

[৬] যশোর থেকে ঢাকাগামী যাত্রী আরিফুল ইসলাম বলেন, ঈদের ছুটিতে বাড়িতে আসার সময় শুধুমাত্র ফেরি চলাচল করায় গাদাগাদি করে ফেরি পার হয়েছি। এখন দুরপাল্লার বাস, ট্রেন ও লঞ্চ চলাচল করায় যাত্রীরা খুব সহজেই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাচল করতে পারছে। তবে বাস এবং লঞ্চে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছে।

[৭] বিআইডব্লিউটিএ দৌলতদিয়া লঞ্চঘাট ট্রাফিক ইন্সপেক্টর আফতাব হোসেন বলেন, ধারণ ক্ষমতার অর্ধেক যাত্রী নিয়ে লঞ্চ চলাচল শুরু করেছে। সোমবার ভোর ৬টায় দৌলতদিয়া ঘাট থেকে লঞ্চ পাটুরিয়ার উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়ার মধ্য দিয়ে লঞ্চ চলাচল শুরু হয়। লঞ্চ চালু হওয়ায় সাধারণ যাত্রীদের মধ্যে স্বস্তি দেখা গেছে।

[৮] গোয়ালন্দ ঘাট রেলওয়ে স্টেশন মাষ্টার আ. জলিল জানান, দীর্ঘ ৪৯দিন পর গোয়ালন্দ ঘাট দিয়ে ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে। এতে করে এ রুটে চলাচলকারী যাত্রীরা সব স্টেশন থেকেই ওঠা-নামা করতে পারব্।সম্পাদনা:অনন্যা আফরিন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত