শিরোনাম
◈ ইউক্রেন যুদ্ধে সরাসরি জড়াতে পারে যুক্তরাষ্ট্র! ◈ শরীরে স্লোগান, জ্বালানি ও নিত্য পণ্যের দাম কমানোর দাবি ◈ কেরানীগঞ্জের বিসিক শিল্প এলাকায় প্লাস্টিক কারখানায় আগুন ◈ ভারতের ৭ রাজ্যে পুরুষের তুলনায় শয্যাসঙ্গী বেশি নারীর ◈ গাজীপুরে শিক্ষক দম্পতির মৃত্যুতে হত্যা মামলা দায়ের ◈ অটো পাইলট চালু করে ঘুমিয়ে পড়লেন পাইলট, অতঃপর যা ঘটলো ◈ ভারতকে দিয়েই কী তাহলে আওয়ামী লীগ সরকার দাঁড়িয়ে আছে? ◈ ইসরাইলের সঙ্গে উত্তেজনা, ইহুদি এজেন্সি বন্ধ করে দিচ্ছে রাশিয়া ◈ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্য ব্যক্তিগত, ভারতকে অনুরোধ করেনি আওয়ামী লীগ ◈ মিডিয়াকে সহনশীল হওয়ার অনুরোধ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

প্রকাশিত : ২২ মে, ২০২১, ০৯:২৫ রাত
আপডেট : ২২ মে, ২০২১, ০৯:২৬ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে লেখাপড়া জারি রাখতে আমাদের কি কি করণীয়?

কামরুল হাসান মামুন: অবস্থাদৃষ্টে এইটা নিশ্চিত যে করোনা সহসা যাচ্ছে না। তাই বলে শিক্ষা ব্যবস্থা বন্ধ থাকতে পারে না। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কিভাবে লেখাপড়া জারি রাখা যায় তার জন্য আমাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা জারি রাখতে হবে এবং সেটা দৃশ্যমান হতে হবে। আমাদের কি কি করণীয়?

১। শিক্ষার্থীদের জন্য স্বল্পমূল্যে দ্রুত গতির ইন্টারনেট সার্ভিসের বিশেষ প্যাকেজ ব্যবস্থা চালু করা।
২। কেবল যাদের পরীক্ষা অথবা ল্যাব ক্লাস থাকবে তাদের জন্য আবাসিক হল খোলা রাখা।
৩। ৫০% অনলাইন এবং ৫০% অফ লাইন ক্লাস চালু করা। ৫০% অফ লাইন ক্লাসের মধ্যে পরীক্ষা ও ব্যাবহারিক ক্লাস থাকতে পারে।
৪। ভবিষ্যতে যেন কোন আবাসিক হলে গণরুম নামক কোন ব্যবস্থা থাকতে না পারে তার সমাধানে এখনই কার্যকরী ব্যবস্থা নেওয়া।

আমাদের শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ নিয়ে ছিনিমিনি খেলতে পারিনা। সরকার এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রশাসনকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে কিভাবে লেখাপড়া চালু রাখা যায় তার একটি পথ বের করতেই হবে। এইভাবে চলতে পারেনা। ব্রিটেনে করোনা প্যান্ডেমিকের কত খারাপ অবস্থায় ছিল তা নিশ্চই সবাই জানেন। অথচ তা সত্বেও শুধু প্রথম লকডাউনে স্কুল কলেজ বন্ধ ছিল। এরপর সবসময়ই অনলাইন অফ লাইনের মিশ্রনে শিক্ষা কার্যক্রম চলমান রেখেছে। আমরা তাদের চেয়ে শতগুন ভালো হওয়া সত্বেও কেন সেটা করলাম না? আমাদের খুব দ্রুত এমন ব্যবস্থা নেওয়া দরকার।

  • সর্বশেষ