প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কারাগার থেকে বের হয়ে পুরানো কাজে জড়িত হয় চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী কাদের

রাজু চৌধুরী: চট্টগ্রাম নগরীর কোতোয়ালী এলাকায় ফেন্সিডিল ও গাঁজা বিক্রয় করতে গিয়ে চিহ্নিত মাদক কারবারি মো.আব্দুল কাদের ৯ম বারের মত অন্য দুই মাদক ব্যাপারী সহ গ্রেপ্তার হয়েছে।

পুলিশ জানায়, রোববার (১৬ মে) গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাত ১২ টার কিছু সময় পরে ফেনসিডিল ব্যবসায়ী শহিদুল এবং বাবলুকে গ্রেপ্তার করে। পরে তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে চিহ্নিত এবং আট মামলার আসামি অপর এক মাদক ব্যবসায়ী আব্দুল কাদেরকে (৪৫) গ্রেপ্তার করে। এই সময় তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ১৮০ বোতল ফেনসিডিল এবং সাড়ে ৩ কেজি গাঁজা।

কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ নেজাম উদ্দীন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এসআই সুকান্ত চৌধুরী সঙ্গীয় অফিসার সহ কোতোয়ালী থানাধীন আন্দরকিল্লা নজির আহমদ চৌধুরী সড়ক বন বিভাগ অফিসের পার্শ্বে বশির উদ্দিনের বিল্ডিং এর ৩য় তলার সিড়ির সামনের কক্ষের ভিতর মোঃ শহিদুল ইসলাম (৪২) এবং বাবলু মজুমদার ( ৪৬)কে আটক করেন। মোঃ শহিদুল ইসলাম(৪২) এর হাতে থাকা ট্রাভেল ব্যাগে ৩৩ বোতল ফেন্সিডিল ও বাবলু মজুমদার (৪৬) এর পকেট হইতে ০২ বোতল ফেন্সিডিল সহ আটক করার পর তাদের দেওয়া তথ্য মতে রাত ০২.০৫ ঘটিকার সময় পাঁচলাইশ থানাধীন শুলক-বহর আব্দুল হামিদ বাই লেইন (হোল্ডিং ১৫২/বি/৪৩৭) মনোয়ারা ভিলাস্থ আসামী আব্দুল কাদের এর সেমিপাকা ভাড়া বাসায় অভিযান পরিচালনা করে মাদক কারবারি আব্দুল কাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয় জিজ্ঞাসাবাদে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ১৪৫ বোতল ফেন্সিডিল ও গাঁজা জব্দ করেন।

আসামীদের ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায় যে, উক্ত ফেন্সিডিল গুলো পলাতক আসামী মোঃ কায়ছার (৪০) এর কাছ থেকে নিয়ে আব্দুল কাদের বেশী দামে বিক্রি করে। ওসি নেজাম উদ্দীন আরো বলেন , আবদুল কাদেরকে যতবার গ্রেপ্তার করা হয় প্রতিবারই সে মাদক ব্যবসা ছেড়ে দেওয়া়র কথা বলে কিন্তু জেল থেকে বের হয়ে আবার পুরোনো মাদকের জগতে পথে ফিরে আসে।

এসআই সুকান্ত চৌধুরী বাদী হয়ে আসামীদের বিরুদ্ধে এজাহার দায়ের করলে মাদকদ্রব্য আইনে ০১টি মামলা রুজু হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত