প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কাজী আহমেদ পারভেজ: করোনা থেকে মুক্তির কার্যকর উপায় কি এখনো বুঝতে পারছেন না!

কাজী আহমেদ পারভেজ: ‘শীতে করোনা বাড়বে…’ – এরকম একটা ধারণার মুখে ছাই দিয়ে ডিসেম্বরের শুরু থেকে শীত আসার সাথে সাথে এদেশে করোনার প্রকোপ কমা শুরু হয়। পুরো ডিসেম্বর, জানুয়ারি তো বটেই ফেব্রুয়ারিতেও সেটা চলমান থাকে…। মার্চের শুরুতে, মানে গরম পড়ার শুরুতে এটা হঠাৎ করেই বাড়া শুরু হয় ও প্রতি সপ্তাহে দ্বিগুণ থেকে চারগুন করে বেড়ে পরবর্তি ৪/৫ সপ্তাহে এটা আগের গড় থেকে ২০-২২ গুণ বেড়ে যায়। কিন্তু কীভাবে? শোনা গেছিলো, এটা নাকি হয়েছিলো, সাউথ আফ্রিকান অথবা ইন্ডিয়ান কোনো কোনো ভ্যারিয়েন্টের প্রকোপে, যা নাকি বেশি ছোঁয়াচে প্লাস বেশি ফ্যাটাল। যাহোক, নীতিনির্ধারকগণ আবারো একটা সঠিক সিদ্ধান্ত নিলেন ও যাতায়ত-মেলামেশা নিয়ন্ত্রণে কঠোর হলেন। স্ট্রেইন শক্ত হোক বা নরম, দেখা গেলো, পরিস্থিতি আবার নিয়ন্ত্রণে আসা শুরু হয়ে গেছে।

এবার আসল কথাটা বলি:দেখলেন তো, স্ট্রেইন বেশি না কম ফ্যাটাল- সেটা না, সংক্রমণের হার উচ্চ না নিম্ন – সেটাও কথা না। চলমান প্যান্ডেমিক থেকে বেরিয়ে আসার জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো: এভয়েডিং ক্রাউড, মানে সোশাল ডিস্টেনসিং মনে রাখবেন, ভাইরাস কখনো নিজে থেকে এসে এটাক করে না। আমরাই বরং রিকশাভাড়া করে ভাইরাসের কাছে যাই এবং তাকে দাওয়াত করে ডেকে আনি। তাই ভাইরাসের থেকে নিরাপদ থাকতে চাইলে, অন্যকে দোষারোপ করা বন্ধ করুন। স্ট্রেইন শক্ত না নরম, সেই গবেষণা বা অনুমান কমান, ডিস্ট্যান্সিং+ভেন্টিলেশন+ভ্যাকসিনেশন এই তিনটা খুবই গুরুত্বের সাথে চর্চ্চা করাটা চালিয়ে যান। দেখবেন, আজ হোক বা কাল, করোনা মুক্ত আমরা হবোই হবো, ইনশাআল্লাহ…। ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত