প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কুকুরের কারণে সরকারি ছুটি

নিউজ ডেস্ক : দেশজুড়ে উৎসবের আমেজ। চলছে নানা অনুষ্ঠান। ঘোষণা করা হয়েছে সরকারি ছুটি। তা–ও একটি বিশেষ জাতের কুকুরকে কেন্দ্র করে। শুনে অবাক হলেও এমন কাণ্ড ঘটিয়েছেন তুর্কমেনিস্তানের প্রেসিডেন্ট গুরবানগুলে বার্দিমুখআমেদভ। পোষা প্রাণীর প্রতি ভালোবাসা প্রদর্শনের জন্য বিশেষ খ্যাতি রয়েছে তাঁর। প্রথম আলো

অ্যালাবে, মধ্য এশিয়ার শেফার্ড প্রজাতির কুকুরের একটি বিশেষ জাত। প্রেসিডেন্ট গুরবানগুলের ভীষণ পছন্দের। এ জাতের কুকুরকে তুর্কমেনিস্তানের জাতীয় ঐতিহ্য বিবেচনা করেন তিনি। ঐতিহ্য রক্ষায় এ জাতের কুকুরের প্রতিপালনে সাধারণ মানুষকে উৎসাহিত করতে চান গুরবানগুলে। এ জন্য কুকুর নিয়ে এই রাষ্ট্রীয় আয়োজন। সরকারি ছুটি ঘোষণা।

বিবিসি জানায়, গত রোববার তুর্কমেনিস্তানে অ্যালাবে জাতের কুকুরকে সম্মান জানাতে আয়োজন করা হয় বিশেষ অনুষ্ঠানের। এ আয়োজনকে ঘিরে দেশটিতে ঘোষণা করা হয় সাধারণ ছুটি। এ সময় অ্যালাবে কুকুর নিয়ে একটি বিশেষ প্রদর্শনী হয়। সঙ্গে ছিল প্রতিযোগিতার আয়োজন। সৌন্দর্য ও ক্ষিপ্রতার ভিত্তিতে অ্যালাবে জাতের কুকুরদের মধ্য থেকে সেরা নির্বাচন করেন বিচারকেরা।

এ আয়োজনে সীমান্তরক্ষী বাহিনীতে সাহসী সেবা দেওয়ার জন্য গুরবানগুলে একটি কুকুরকে পুরস্কৃত করেন। পুরস্কার তুলে দেন প্রেসিডেন্টের ছেলে সেরদার বার্দিমুখআমেদভ। তিনি মধ্য এশিয়ার দেশ তুর্কমেনিস্তানের উপপ্রধানমন্ত্রীর দায়িত্বে রয়েছেন। এর আগে রাজধানী আশগাবাতে একটি কুকুর প্রজননকেন্দ্র উদ্বোধন করা হয়। দেশটির গণমাধ্যম জানিয়েছে, অ্যালাবে জাতের কুকুরের প্রজননে কেন্দ্রটি ব্যবহার করা হবে।

গুরবানগুলে এর আগেও কুকুরের প্রতি ভালোবাসা দেখিয়ে আলোচনার জন্ম দিয়েছেন। গত বছর আশগাবাতে অ্যালাবে জাতের কুকুরের একটি মূর্তি গড়েন তিনি। এ মূর্তির উচ্চতা ১৯ ফুট। কুকুরের পাশাপাশি সোনালি ঘোড়ার মূর্তি দিয়েও রাজধানী সাজিয়েছেন প্রেসিডেন্ট গুরবানগুলে। অ্যালাবে জাতের কুকুর ও আহল টেকে জাতের ঘোড়া—দুটোকেই সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নভুক্ত এ দেশে জাতীয় ঐতিহ্য ও গর্বের প্রতীক বিবেচনা করা হয়।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত