প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ইলিয়াস আলী ইস্যুতে বক্তব্য দিয়ে বিপাকে আব্বাস, আজ সংবাদ সম্মেলন

নিউজ ডেস্ক: নিখোঁজ বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ইলিয়াস আলীকে নিয়ে বক্তব্য দিয়ে বিপাকে পড়েছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস। নিজের বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিতে তিনি রোববার (১৮ এপ্রিল) একটি সংবাদ সম্মেলনে ডেকেছেন।

শনিবার (১৭ এপ্রিল) রাতে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এমরান সালেহ প্রিন্স জানান, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস রোববার বিকেল ৩টায় তার শাহজাহানপুরের বাসভবনে সংবাদ সম্মেলনে করবেন।

এদিকে সংবাদ সম্মেলনের বিষয়ে জানতে চাইলে মির্জা আব্বাস বলেন, এখন কিছু বলতে চাই না। আগামীকাল আসেন।

ইলিয়াস আলীকে নিয়ে হঠাৎ কেনো এই ধরনের বক্তব্য, জানতে চাইলে মির্জা আবাস বলেন, আমি বলি নাই যে সরকার ইলিয়াস আলীকে গুম করেনি। আমি বলেছি, সরকার যদি ইলিয়াস আলীকে গুম না করে থাকে, তাহলে কে করেছে তা খুঁজে বের করার দায়িত্ব তাদের (সরকার)। কিন্তু কিছু গণমাধ্যমে আমার বক্তব্য ভিন্নভাবে উপস্থাপন করেছে।

শনিবার এক ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় মির্জা আব্বাস বলেন, ইলিয়াস আলী গুমের পেছনে আমাদের দলের যে বদমাশগুলো রয়েছে তাদেরকেও চিহ্নিত করার ব্যবস্থা করেন প্লিজ। এদেরকে অনেকেই চেনেন।

মির্জা আবাস আরও বলেন, ইলিয়াস গুম হওয়ার আগের রাতে দলীয় কার্যালয়ে এক ব্যক্তির সঙ্গে তার বাকবিতণ্ডা হয়। ইলিয়াস খুব গালি-গালাজ করেছিলেন তাকে। সেই বিষধর সাপগুলো এখনও আমাদের দলে রয়ে গেছে। যদি এদেরকে দল থেকে বিতাড়িত করতে না পারি, সামনে যাওয়া যাবে না।

এদিকে মির্জা আব্বাসের এমন সব বক্তব্যের প্রসঙ্গে বিএনপি নেতারা বলছেন, তার এই বক্তব্যে দলের নেতাদের মধ্যে আলোচনা শুরু হয়েছে যে কার সঙ্গে ইলিয়াস আলীর ওই বাকবিতণ্ডা হয়েছে। কাকে তিনি গালিগালাজ করেছেন। কিন্তু কারও কাছেই এই প্রশ্নের উত্তর নেই।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপির এক নেতা বলেন, এমনিতে খালেদা জিয়ার করোনা আক্রান্ত নিয়ে নেতাকর্মীরা উদ্বিগ্ন। এরমধ্যে এমন বক্তব্য দলের নেতাকর্মীদের মধ্যে একটি অবিশ্বাস তৈরি হয়েছে। অনেকে মনে করছেন, সত্যি কি ইলিয়াস আলী গুমের পেছনে দলের কোনো নেতা জড়িত।

২০১২ সালের ১৭ এপ্রিল রাতে রাজধানীর বনানী থেকে গাড়িচালক আনসার আলীসহ নিখোঁজ হন এম ইলিয়াস আলী। – ঢাকা পোস্ট

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত