প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

হলুদ পানি পানের ৫ স্বাস্থ্য উপকারিতা

স্বাস্থ্য ডেস্ক: পাওয়াফুল মসলা হিসেবে সুপরিচিত হলুদের রয়েছে বেশকিছু স্বাস্থ্য উপকারিতা। এর পাঁচটি অসাধারণ গুণাবলির কথা জানলে দৈনন্দিন খাদ্যতালিকায় যোগ করতে ভুল হবে না আপনার। দেশ রূপান্তর

১. রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি: উপমহাদেশের সুপ্রচীন এই মসলা এখন বিশ্বব্যাপীই সমাদৃত। এর রয়েছে অনেক ঔষধি গুণ। রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি এবং ত্বককে ফ্রি রেডিকেলের হাত রক্ষা করতে কার্যকরী। এতে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টি ভাইরাল উপাদান রয়েছে।

২. ব্যথা সারাতে: উপমহাদেশে দীর্ঘ সময় ধরেই ব্যথা সারানোর দাওয়াই হিসেবে হলুদ ব্যবহৃত হয়ে আসছে। দুধের সঙ্গে এক চিমটি হলুদ গুঁড়ো মিশিয়ে খেলে জয়েন্টের ব্যথা, ইনফেকশন ও ফ্লুর সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। হলুদের অ্যান্টি প্রদাহ উপাদান আর্থ্রিটিক ব্যথা ও প্রদাহ সারাতে সাহায্য করে।

৩. ত্বকের স্বাস্থ্যের উন্নতিতে: প্রচীনকাল থেকেই রূপচর্চায় হলুদ ব্যবহৃত হয়ে আসছে। এর অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস উপাদান ত্বককে ফ্রি রেডিকেল থেকে রক্ষা করে। প্রতিদিন হলুদ পানি পান করলে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়বে, ত্বক হবে স্বাস্থ্যকর এবং সজীব।

৪. ওজন কমাতে ও হজমে সহায়ক: হলুদ হজমশক্তি বাড়াতে সহায়তা করে। এটি বমি বমি ভাব এবং অম্ল ভাব দূর করে। হলুদ ভালো হজমে নিশ্চয়তার পাশাপাশি মুটিয়ে যাওয়া রোধ করে।

৫. লিভারের সুস্থতায়: হলুদ লিভার সুস্থ রাখতে সহায়ক। এটি শরীরে উপকারী এনজাইম উৎপাদন বাড়াতে সহায়তা করে। যা রক্তের দূষিত উপাদান দূর করে।

বাড়িতেই যেভাবে তৈরি করবেন হলুদ পানি-

১. একটি প্যানে এক কাপ পানি গরম করতে দিন।

২. এবার আরেকটি কাপে এক চা চামচ হলুদ, আধা চা চামচ লেবুর রস নিন।

৩. উষ্ণ পানিতে মিশ্রণটি ঢেলে দিন।

৪. চাইলে সামান্য মধু মিশিয়ে নিতে পারেন। কুসুম গরম থাকা অবস্থায় চমৎকার এই পানীয় পান করুন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত