প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ফেসবুকের মতো এ্যাপ তৈরি করতে চান পাকিস্তানের ক্ষুদে প্রফেসর হাম্মাদ সাফি

ডেস্ক রিপোর্ট  : ফেসবুকের মতো এ্যাপ তৈরি করতে চান পাকিস্তানের নান্না প্রফেসর বা ক্ষুদে প্রফেসরখ্যাত হাম্মাদ সাফি। পাকিস্তানের একজন আলেমের মৃত্যুখবর তার নিজের ফেসবুক পেইজ থেকে শেয়ার করলে ফেসবুক তা মুছে দেয়। এরপর ফেসবুকের এ স্বেচ্ছাচারি কাজের জন্য ফেসবুকের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করে এ ইচ্ছা ব্যক্ত করেন তিনি।

আজ বৃহস্পতিবার (৭ জানুয়ারি) নিজের পেইজে দেয়া এক স্টাটাসের মাধ্যমে একথা লিখেন তিনি। স্টাটাসে তিনি আরও লিখেন, ‘ফেসবুক আমার সাথে বারোটা বাজানোর জন্য নেমে এসেছে। মরহুম আল্লামা খাদিম হুসাইন রিজভী সাহেবের ইন্তেকালে আমার করা শোক পোস্ট ডিলিট করে দিয়েছে ফেসবুক। পাশাপাশি তারা আমার ফেসবুক পেইজ বন্ধ করার হুমকিও দিয়েছে। এই কাজ কি পশ্চিমা চরমপন্থী মানসিকতাকে প্রতিফলিত করছে না যে আমার দেশের একজন বয়স্ক ব্যক্তির জন্য লেখা ইতিবাচক শব্দগুলোও অপরাধের আয়নায় দেখছে? সারাবিশ্বের সরকারগুলোর কি উচিত না ফেসবুক চালানোর জন্য কোন নীতিমালা করা?

দ্বিতীয় গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো আমার ফেসবুকে আমাকে ফলো করার সংখ্যা পাঁচ, দশজন নয়। বরং পাঁচ মিলিয়নেরও বেশি। এখন ফেসবুক নিজের ইচ্ছায় শোক প্রকাশ পোস্ট ডিলিট করে। তারা বলছে যে আপনি আমাদের নিয়মের বিরুদ্ধে পোস্ট করেছেন। কিন্তু বুঝতে পারছি না আমি কিসের নিয়মের বিরুদ্ধে গেলাম। আমি তো শুধু সমবেদনা জানিয়েছি। এখনও আমার টুইটারে ফেসবুকে শেয়ার করা পোস্টটা পড়ে দেখতে পারেন, কী ভুল কথা আছে সেখানে? যার উপর ভিত্তি করে ফেসবুক আমাকে না জিজ্ঞেস করেই আমার পোস্ট ডিলিট করে দিয়েছে।

হ্যাঁ, পশ্চিমের অজ্ঞতা নিয়ে প্রতিদিন কঠোরভাবে সতর্ক করে দেওয়া মানুষটির ছবিও কিছু ছিল। মাত্র একটা ছবির এত ভয় আর ঘৃণা? এখন মনে হয় আমাদের সরকার ও প্রশাসন নিয়ন্ত্রিত চীনের মত আমাদের দেশের জনগণের জন্য একটি অ্যাপ তৈরি করার সময় এসেছে। বিশ্বজুড়ে মানুষের মধ্যে ঘৃণা ছড়ানোর জন্য ফেসবুকের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আদালতে মামলা করা উচিত। এরা এমন মানুষ যারা নিজ ইচ্ছায় কিছু করে আর তাদের জিজ্ঞাসা করার কেউ নেই!’

(হাম্মাদ সাফির ফেসবুক পোস্ট অবলম্বনে মোস্তফা ওয়াদুদ)

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত