প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

খুলল রহস্যময় মাচুপিচু, যেতে পারবেন একজন মাত্র পর্যটক !

ডেস্ক রিপোর্ট: গোটা বিশ্বের পর্যটকদের কাছে বরাবরই আকর্ষণের কেন্দ্রে রয়েছে ইনকা সভ্যতার নিদর্শন মাচুপিচু। কিন্তু করোনা মহামারীর কারণে পেরুর সেই রহস্যময় পর্যটনস্থল মাচুপিচুতে পর্যটকদের জন্যে নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছিল। কিন্তু জাপানি পর্যটক জেসি তাকায়ামার জন্যে মাচুপিচুর দরজা খুলে দেওয়া হল। টানা সাত মাস ধৈর্য ধরার পর তাঁকে মাচুপিচু যাওয়ার অনুমতি দিল পেরু প্রশাসন।

কিন্তু শুধুমাত্র তাঁকেই কেন অনুমতি দেওয়া হল? জানা গিয়েছে, ঐতিহ্যবাহী মাচুপিচু ভ্রমণের জন্য গত মার্চ মাসে পেরুতে এসেছিলেন জাপানি পর্যটক জেসি তাকায়ামা। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে তখন থেকেই বন্ধ করে দেওয়া হয় মাচুপিচু। অবশেষে শুধু ওই জাপানি পর্যটকের জন্যই সাত মাস পর মাচুপিচু খুলে দিল পেরু। পেরুর সংস্কৃতিমন্ত্রী আলেজান্দ্রো নেইরা বলেছেন, বিশেষ অনুরোধের কারণেই জেসি তাকায়ামাকে সেখানে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়।

পেরুতে পর্যটকদের শীর্ষ আকর্ষণের নাম মাচুপিচু। তবে, আপাতত একজনের জন্যে হলেও আগামী মাসে নিয়ম করে বাকি পর্যটকদের জন্যও মাচুপিচু খুলে দেওয়া হবে বলে আশা করছেন অনেকে। তবে এখনও পর্যন্ত সরকারের তরফে নির্দিষ্ট কোনও তারিখ জানানো হয়নি।

তাকায়ামার ঘটনা অবশ্য আলাদা। অল্প কয়েক দিন পেরুতে কাটানোর পরিকল্পনা করেছিল জেসি তাকায়ামার। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে বিধিনিষেধ জারি করে পেরু সরকার। সেই নিষেধাজ্ঞার কারণেই মার্চ মাসের মাঝামাঝি সময়ে মাচুপিচুর কাছে আগুয়াস ক্যালিয়েন্টেস শহরে আটকে পড়েন তিনি।

পেরু সরকারের তরফে বলা হয়েছে, মাচুপিচুতে ঘোরার স্বপ্ন নিয়েই জেসি তাকায়ামা পেরুতে এসেছিলেন। এক ভিডিয়োতে দেখা যায়, তাকায়ামা তাঁর সফরে ঘুরছেন। পেরুকে আশ্চর্যজনক সুন্দর বলেও মন্তব্য করেন তাকায়ামা। পেরু সরকারের সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের ধন্যবাদও জানান তিনি। পেরুর সংস্কৃতিমন্ত্রী আলেজান্দ্রো নেইরা বলেন, মাচুপিচুর প্রধানের সঙ্গে ওই পর্যটককে ঘুরে দেখার অনুমতি দেওয়া হয়েছে, যাতে তিনি ফিরে যাওয়ার আগে ভালো করে মাচুপিচু ঘুরে দেখতে পারেন।

এই সময় ডিজিটাল এখন টেলিগ্রামেও। সাবস্ক্রাইব করুন, থাকুন সবসময় আপডেটেড। জাস্ট এখানে ক্লিক করুন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত