প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ‘টি- টোয়েন্টি খেললে ডিন জোন্সকে নিয়ে কাড়াকাড়ি পড়ে যেতো’

স্পোর্টস ডেস্ক : [২] দুদিন আগে মুম্বাইয়ের এক সেভেন স্টার হোটেলে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে পরলোকে পাড়ি জমিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক ক্রিকেটার, জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার ও ক্রিকেট বিশ্লেষক ডিন জোন্স।

[৩] শৈশব থেকেই জোন্সের বড় ভক্ত ছিলেন শচীন টেন্ডুলকার। ভারতীয় এই কিংবদন্তি ক্রিকেটার মনে করেন জোন্স এই যুগে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট খেললে তাকে নিয়ে কাড়াকাড়ি পড়ে যেত। যে কয়জন ক্রিকেটার ওয়ানডে ক্রিকেটের ধারা পাল্টে দিয়েছেন তাদেরই একজন জোন্স। টেন্ডুলকারও এই কথার সঙ্গে একমত। তার মতে জোন্স রানিং বিটুইন দ্য উইকেটে দুর্দান্ত ছিলেন। এই জায়গায় বর্তমান কালের সেরা সেরা ব্যাটসম্যানদের টেক্কা দিতে পারতেন তিনি।

[৪] টেন্ডুলকার বলেন, আমি শতভাগ নিশ্চিত, বিশ্বের সেরা টি- টোয়েন্টি তারকাদের মধ্যে একজন হতেন ডিন জোন্স। কোনো নিলাম হলে ডিনোকে নিয়ে কাড়াকাড়ি পড়ে যেত। অসাধারণ একজন স্ট্রোক প্লেয়ার ছিলেন তিনি, রানিং বিটুইন দ্য উইকেট -এ দুর্দান্ত। ফিল্ডার হিসেবেও অসাধারণ ছিলেন। একজন আদর্শ টি-টোয়েন্টি খেলোয়াড়ের মধ্যে আপনি যেসব গুণাবলি চান, সবকিছুই ছিল তার।

[৫] টেন্ডুলকারের বিশ্বাস যেহেতু জোন্স ওয়ানডে ক্রিকেটার হিসেবে দুর্দান্ত ছিলেন তাই টি-টোয়েন্টির সঙ্গেও মানিয়ে নিতে সমস্যা হতো না তার। ভারতীয় এই কিংবদন্তির কাছে জোন একজন সময়ের চেয়ে এগিয়ে থাকা ক্রিকেটার।

[৬] টেন্ডুলকার বলেন, তিনি যেহেতু ওয়ানডে ক্রিকেটার হিসেবে দুর্দান্ত ছিলেন, সেহেতু টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের নিয়ত পরিবর্তনশীল নিয়মকানুনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে পারতেন বেশ। ক্রিকেটের প্রতিটি সংস্করণই অনন্য, আর আমার মনে হয় ক্রিকেটের সব সংস্করণের সঙ্গে চাহিদা অনুযায়ী নিজেকে মানিয়ে নেওয়ার ক্ষমতা ছিল তার। দুর্দান্ত এক টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটার হতে পারতেন তিনি।

[৭] আশি বা নব্বইয়ের দশকে তিনি যেমন ক্রিকেটই খেলুন না কেন, তা সময়ের চেয়ে অনেক এগিয়ে ছিল। তখনই ফাস্ট বোলারদের নিয়মিত মেরে খেলতে পারতেন। আমরা এখন সৃষ্টিশীল শটের কথা আলোচনা করি, তবে এটা মাথায় রাখতে হবে, এখন অপরিচিত যেসব শট ব্যাটসম্যানরা খেলে, তা অনেক আগে কেউ না কেউ খেলে গিয়েছিল। আর ডিন জোন্স তাদের মধ্যে একজন ছিলেন। – ক্রিকফ্রেঞ্জি/ জি নিউজ

 

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত