প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মহামারীর মধ্যেই হলো ভিডিও গেমস কনফারেন্স

ডেস্ক রিপোর্ট : কভিড-১৯ মহামারীকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে গত ৩১ জুলাই থেকে ৩ আগস্ট অনুষ্ঠিত হলো এশিয়ার সবচেয়ে বড় ভিডিও গেমস কনফারেন্স ‘চায়নাজয়’। যদিও এবারের আসরটি ছিল গতবারের চেয়ে একেবারে ভিন্ন।

কভিডে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করার প্রয়োজনীয়তার কারণে এ অঞ্চলের বেশির ভাগ বড় পরিসরের অনুষ্ঠানই বাতিল হয়েছে। যদিও চায়নাজয় কনফারেন্সে অংশ নিতে ১ লাখ ৫০ হাজার ভিডিও গেমার ও ভক্ত সাংহাই নগরীতে পা রাখে।

চায়না ডিজিটাল এন্টারটেইনমেন্ট এক্সপো অ্যান্ড কনফারেন্স নামে পরিচিত এ চায়নাজয় গত বছর ৩ লাখ ৮০ হাজার অতিথির অংশগ্রহণ প্রত্যক্ষ করেছিল। এ বছর ভিন্ন আবহে ভিন্ন পরিস্থিতির মধ্যেও নতুন নতুন গেম আর গ্যাজেটের প্রদর্শনী ছিল। সে সঙ্গে ছিল ভিডিও গেমস প্রতিযোগিতা।

সম্প্রতি প্রযুক্তি ও গেমের অনেক শো বাতিল করা হয়েছে। যেমন সাংহাইতে জনপ্রিয় ‘সিইএস এশিয়া’ বাতিল হয়ে যায়। এমন প্রেক্ষাপটেও চায়নাজয় আয়োজন করা হলো।

গত বছরের চেয়ে এবার অংশগ্রহণকারী (গেমার ও অতিথি) অর্ধেক হলেও অনুষ্ঠানের আয়োজক হাওয়েল ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড ফেয়ার বলছে, লাখ লাখ মানুষ লাইভ স্ট্রিমিংয়ে এ অনুষ্ঠান দেখেছে। প্রতিষ্ঠানটির ঝিহাই হ্যান বলেন, ‘আমরা মনে করি এটা চীন ও বিশ্বের ডিজিটাল এন্টারটেইনমেন্ট কোম্পানিগুলোকে দ্রুতগতিতে উন্নয়নের পথে ফিরতে সাহায্য করবে। এছাড়া ইন্ডাস্ট্রির আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে তাকে স্বাভাবিক অবস্থায় ফেরাতেও সাহায্য করবে।’

চায়নাজয় সম্মেলনে অতিথিদের প্রবেশ করতে ফেস মাস্ক পরা ছিল বাধ্যতামূলক, পাশাপাশি তাদের মুখের স্ক্যান আর তাপমাত্রা পরীক্ষাও করা হয়। এছাড়া গেমারদের নিজেদের স্মার্টফোনে সাম্প্রতিক হেলথ স্ট্যাটাসও একটি ডিজিটাল কোডের মাধ্যমে রাখতে হয়েছে। চায়নাজয় কনফারেন্সে এবার ১৬ ও ১০ বছর বয়সী দুই ভাই অংশ নিয়েছে, যা আগে কখনো ঘটেনি।

বিবিসি, বণিক বার্তা

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত