প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভারত থেকে গাড়ির চালান এলো ট্রেনে

ডেস্ক রিপোর্ট : প্রথমবারের মতো ভারতীয় রেলওয়ের মাধ্যমে অটোমোবাইলের চালান এসেছে বাংলাদেশে। ৫১টি টাটা পিকআপের এই চালান গতকাল বাংলাদেশে প্রবেশ করে। ১৫টি পার্সেল ভ্যানে করে হলদি রোড স্টেশন থেকে গত রবিবার রওনা দেয়। ১৪০৭ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে চালানটি গতকাল বেনাপোল স্টেশনে পৌঁছায়। এর আগে কখনো ট্রেনে করে অটোমোবাইলের কোনো চালান বাংলাদেশে আসেনি।

ভারতীয় হাইকমিশন জানায়, সনাতন ফ্রেইট ট্রেন সার্ভিস এবং সম্প্রতি চালু হওয়া পার্সেল ট্রেন পরিষেবার বাইরে রেলপথে কার্গো পরিবহনের জন্য নতুন একটি পরিবেশ হলো কনটেইনার ট্রেন সার্ভিস। ভারতে কনটেইনার করপোরেশন অব ইন্ডিয়া লিমিটেডের মনোনীত ইনল্যান্ড কনটেইনার ডিপো এবং টার্মিনালগুলোর সঙ্গে বাংলাদেশ রেলওয়ের বিভিন্ন স্টেশনকে সংযুক্ত করার স্থায়ী পরিষেবা হবে এই কনটেইনার ট্রেন। কনটেইনার ট্রেন সার্ভিস শুরু করার জন্য ২০১৭ সালের এপ্রিলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরের সময় কনটেইনার করপোরেশন অব ইন্ডিয়া এবং বাংলাদেশ কনটেইনার কোম্পানি লিমিটেড একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করে। প্রথম পরীক্ষামূলক ট্রেনটি কলকাতা থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম স্টেশন (বিবিডব্লিউ) পর্যন্ত ২০১৮ সালের ৩ এপ্রিল সফলভাবে পরিচালিত হয়েছিল। তবে বাণিজ্যিকভাবে গত রবিবার ভারত থেকে প্রথম এই কনটেইনার ট্রেনে বাংলাদেশে আসে। সেদিন এফএমসিজি পণ্য ও কাপড় বোঝাই ৫০টি কনটেইনার আসে বাংলাদেশে।

জানা যায়, করোনাভাইরাসের মহামারীতে আমদানি-রপ্তানি সরবরাহ ব্যবস্থা হুমকির মুখে পড়েছিল। তখন দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্যের অচলাবস্থা কাটাতে কার্যকর উপায় হিসেবে সামনে চলে আসে রেলপথ। এ নতুন চালু হওয়া কনটেইনার ট্রেন সার্ভিসের মাধ্যমে রেলপথে দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্যের বিশাল সুযোগ উন্মুুক্ত হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।বাংলাদেশ প্রতিদিন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত