প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] এমপি’র ঐচ্ছিক তহবিলের অনুদান পেলেন পিএস, তালিকায় রেকর্ড পরিমাণ স্বজনপ্রীতি

সজিবুল আলম, শাজাহানপুর প্রতিনিধি : [২] বগুড়া-৭ (শাজাহানপুর-গাবতলী) আসনের সংসদ সদস্য রেজাউল করিম ওরফে বাবলু’র ঐচ্ছিক তহবিলের অনুদানের অর্থ বিতরণে রেকর্ড সংখ্যক স্বজনপ্রীতি করা হয়েছে। এর ফলে একদিকে যেমন সরকারি অনুদানের নীতিমালা লংঘন করা হয়েছে অন্যদিকে, অসহায়-দুঃস্থদের নায্য পাওনা থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে।

[৩] জানা গেছে, ২০১৯-২০ অর্থ বছরে সংসদ সদস্য রেজাউল করিম বাবলু এর অনূকুলে ৪ লক্ষ ৮০ হাজার টাকা ঐচ্ছিক তহবিল হতে অনুদান বরাদ্দ হয়। আটচল্লিশ জন ব্যক্তির মাঝে ১০ হাজার টাকা করে অনুদান প্রদান করা হয়েছে।

[৪] গত বুধবার উপজেলা প্রশাসন উপকারভোগীদের মাঝে অনুদানের চেক বিতরণ করেন। অনুদানে উপকারভোগী তালিকায় নাম রয়েছে, সংসদ সদস্যের ব্যক্তিগত সচিব (পিএস) রেজাউল করিম, আপন ছোট ভাই ওয়াজেদ আলী গোলবাগী, শাজাহানপুর উপজেলা প্রতিনিধি ও উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি নজরুল ইসলাম, নজরুল ইসলামের স্ত্রী বেদনা ইসলাম, নজরুল ইসলামের ছোট ভাই আরাফাত হোসেন, দুই শ্যালক আব্দুল বাছেদ রঞ্জু ও তাজনুর রহমান, দুই শ্যালিকা শাপলা ও শিউলী খাতুন, মেয়ে জামাই সোহানুর রহমান মোসলেম, বেয়াই তমিজ উদ্দিন, বেয়াইন তহমিনা আক্তারের নাম। এছাড়াও তালিকায় স্থান পাওয়া সবাই সংসদ সদস্যের স্বজন ও ঘনিষ্ঠজন।

[৫] উপকারভোগীরা সংসদ সদস্যের নিজগ্রাম ডোমনপুকুর, শশুরবাড়ি গ্রাম মানিকদিপা ও তাঁর উপজেলা প্রতিনিধির গ্রাম খরনা ধাওয়াপাড়ার বাসিন্দা।

[৬] সংসদ সদস্যের এমন কার্যক্রমে উপজেলা ব্যাপী ছি ছি রব পড়েছে । জনমনে প্রশ্ন উঠেছে, সংসদ সদস্যের ঐচ্ছিক তহবিলের অর্থ বিতরণে দেশের ইতিহাসে এতো বড় স্বজনপ্রীতির ঘটনা বিরল হয়ে থাকবে।

[৭] বগুড়া-৭ (শাজাহানপুর-গাবতলী) আসনের সংসদ সদস্য রেজাউল করিম বাবলু’র সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

[৮] উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহমুদা পারভীনকে মোবাইল ফোনে পাওয়া যায়নি। এমনকি বার্তা দিলেও তাঁর সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি। সম্পাদনা : হ্যাপি

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত