প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বাংলাদেশে বসবাস করছে ৮ হাজার চীনা নাগরিক

আসিফ কাজল : [২] বাংলাদেশে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ ও তৈরি পোশাকশিল্পে কর্মরত চীনা নাগরিকের সংখ্যা ১৪-১৫ হাজার। চাইনিজ এন্টারপ্রাইজ এসোসিয়েশন বাংলাদেশের ভাইস প্রেসিডেন্ট কে চ্যাংলিয়াং এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, তবে এদের মধ্যে কেউ স্থায়ীভাবে বাংলাদেশে বসবাস করে না। প্রায় সবাই নিয়মিত ও অনিয়িমিতভাবে চীন থেকে বাংলাদেশে যাতায়াত করে।

[৩] তিনি আরও বলেন, ভিসা জটিলতা ও কোভিড-১৯ ভাইরাসের কারণে প্রায় ৪০ ভাগ চীনা নাগরিক এখন নিজ দেশে অবস্থান করছেন।

[৪] দেশে পদ্মা সেতু, মেট্রোরেলসহ বাংলাদেশে বিভিন্ন মেগা প্রকল্পের নির্মাণ কাজ চলছে। এসব প্রকল্পের দায়িত্বে রয়েছে একাধিক চীনা প্রতিষ্ঠান। পদ্মা সেতুর রেল সংযোগ চায়না রেল গ্রুপের প্রকল্প পরিচালক ওয়াং কুন বলেন, রেল সংযোগ নির্মাণে দেশে ১৭০০ চীনা স্টাফ বাংলাদেশে কাজ করছিলেন। যাদের মধ্যে ২৩৫ জন চীনে ফিরে গেছেন। এছাড়াও ১৫০ জন প্রকৌশলী ভিসা জটিলতায় চীনে আটকে আছেন।

[৫] এ বিষয়ে পদ্মা লিংক রোড প্রকল্প পরিচালক গোলাম ফখরুদ্দিন আহমেদ চৌধুরী জানান, এসব চীনা প্রকৌশলীকে বাংলাদেশে আনতে আমরা ইতোমধ্যে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে কথা বলে অনুরোধ জানিয়েছি। আশা করি খুব দ্রুত এর সমাধান হবে।

[৬] জানা যায়, করোনা ভাইরাসের প্রভাবে বর্তমানে বাংলাদেশে চীনের অন এরাইভাল ভিসা কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। এ সিদ্ধান্তকে সময়উপযোগী বলে জানিয়েছিলো চীনা দূতাবাস। তবে বুধবার চীনের রাষ্ট্রদূত লি জিমিং বলেন, চীনের বর্তমান অবস্থা অনেক ভালোর দিকে। এ কারণে তিনি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে সিদ্ধান্ত পূণঃবিবেচনার আহবান জানিয়েছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত