প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

হাত-পা ঝিনঝিনে করণীয়

ডা. এম ইয়াছিন আলী : আমাদের প্রাত্যহিক জীবনে অনেক সময় হাত-পায়ে ঝিনঝিন বা অবশ-অবশ অনুভূত হয়। রোগীর ধারণা, রাতে একদিকে কাত হয়ে শুয়ে থাকলে একটু পর অন্য পাশের হাত ও পা ঝিনঝিন বা অবশ-অবশ অনুভূত হয়। এরপর শোয়া থেকে উঠে কিছুক্ষণ হাঁটাহাঁটি করলে স্বাভাবিক হয়ে যায়। এ কারণে রাতে ঘুমাতে অসুবিধাসহ কারও কারও ক্ষেত্রে হাতে কোনো জিনিস কিছু সময় ধরে রাখলে হাত ঝিনঝিন বা অবশ-অবশ মনে হয়। কিছুক্ষণ পর আর ধরে রাখতে পারে না। এমনকি মোবাইল ফোনে কথা বলার সময় বেশিক্ষণ মোবাইল ফোনটি কানে ধরে রাখতে পারে না।

বিভিন্ন কারণে আমাদের হাত-পায়ের ঝিনঝিন বা অবশ-অবশ অনুভূত হতে পারে। যেমন- আমাদের হাত ও পায়ের রক্ত চলাচল স্বাভাবিকের চেয়ে কম হলে যাদের সারভাইক্যাল স্পাইন বা ঘাড় এবং লাম্বার স্পাইন বা কোমরে নার্ভ বা স্নায়ুর ওপর চাপ লেগে থাকলে; শোবার বিছানা বেশি নরম হলে; এ ছাড়া কিছুু কিছু রোগের ক্ষেত্রে যেমন-সারভাইক্যাল স্পন্ডাইলোসিস, কার্পাল টানেল সিনড্রোম, লাম্বার স্পন্ডাইলোসিস, ভেরিকোজ ভেইন বা ডিপ ভেইন থ্রোম্বোসিস, পেরিফেরাল নিউরোপ্যাথি, ডায়বেটিক নিউরোপ্যাথি, মটর-নিউরন ডিজিজ ইত্যাদি; ভিটামিন বা মিনারেলের অভাবজনিত কারণে সমস্যা হতে পারে।

আমরা অনেক সময় প্রাথমিক পর্যায়ে এ ধরনের সমস্যাগুলো গুরুত্ব দিই না, যে কারণে রোগটি পরবর্তীকালে মারাত্মক আকার ধারণ করে, তখন রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া কঠিন হয়ে পড়ে। তাই এ ধরনের উপসর্গ দেখা দিলে বিলম্ব না করে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের শরণাপন্ন হোন এবং কারণ নির্ণয় করে চিকিৎসা নিন।

লেখক : চেয়ারম্যান ও চিফ কনসালট্যান্ট, ঢাকা সিটি ফিজিওথেরাপি হাসপাতাল, ধানমণ্ডি ঢাকা। ০১৭৮৭১০৬৭০২

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত