প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সিটি নির্বাচনকে সামনে রেখে বহিরাগত অস্ত্রধারীদের ঢাকায় জড়ো করছে বিএনপি, বললেন ওবায়দুল কাদের

সমীরণ রায়: মঙ্গলবার রাজধানীর ধানমন্ডির আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের সম্পাদকম-লীর বৈঠক শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী আরও বলেন, বিএনপির বিভিন্ন স্থানে মহড়া দিচ্ছে। এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া উচিত। তল্লাশি করে ব্যবস্থা নেয়া দরকার। নির্বাচন কমিশন যদি একটি সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠান করতে চান তাহলে তাদেরকে সেরকম পরিবেশ বজায় রাখতে হবে। এ দায়িত্ব নির্বাচন কমিশনের।

বিএনপি আওয়ামী লীগের প্রার্থীর নির্বাচনী অফিসে লাথি মেরেছে, গুলি করেছে। তারা যে কর্মকাণ্ড ঘটিয়েছে তার সবগুলোর ভিডিও ফুটেজ আছে। এগুলো সংগ্রহ করে প্রকৃত সত্য উদঘাটন করা হোক এবং নির্বাচন কমিশন দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিক এটাই আমরা চাই। শেখ হাসিনার সরকার নির্বাচন কমিশনকে সম্পূর্ণ স্বাধীন এবং কর্তৃত্বপরায়ণ অবস্থান থেকে নির্বাচন পরিচালনা করার সকল স্বাধীনতা এবং সুবিধা দিতে প্রস্তুত।

কাদের বলেন, দলের বিদ্রোহী কাউন্সিলর প্রার্থীদের এটা অভ্যন্তরীণ বিষয়। বিদ্রোহীদের কারণে আমাদের কোনো সমস্যা হচ্ছে না। তারা নির্বাচনে কোনো বিঘ্ন সৃষ্টি করছে না। এমন কোনো পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়নি যে বিদ্রোহী প্রার্থীদের কারণে নির্বাচনে বিঘ্ন সৃষ্টি হচ্ছে। তাদের বিষয়ে কোনো কথা না বলাই ভালো।

তিনি বলেন, আগামী এক মাসের মধ্যে বিষয়ভিত্তিক সম্পাদকীয় উপ-কমিটিগুলো গঠন করে দলীয় সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে জমা দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এছাড়া বিভাগীয় দায়িত্ব প্রাপ্ত যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদকদের ফেব্রুয়ারি মাস থেকে মেয়াদোত্তীর্ণ জেলা, উপজেলা, থানা কমিটিগুলোর কাউন্সিল করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, মুজিববর্ষ উপলক্ষে দলের পক্ষ থেকে বিশিষ্টজনদের লেখা নিয়ে একটি স্মরণিকা প্রকাশ করা হবে। এছাড়া সারাদেশের তৃণমূলের প্রবীণ নেতাদের ঢাকায় ডেকে এনে সংবর্ধনা দেয়া হবে।

সভায় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দিপু মনি, হাছান মাহমুদ, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, এস এম কামাল হোসেন, আফজাল হোসেন, সাখাওয়াত হোসেন শফিক, দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক ইঞ্জি. আব্দুস সবুর, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী প্রমুখ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত