প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জামিন দেয়ার দায়িত্ব আদালতের বলছে আওয়ামী লীগ, খালেদা জিয়া জামিনের হকদার দাবি বিএনপির

শাহানুজ্জামান টিটু : কারাবন্দী খালেদা জিয়া আগামী সপ্তাহে জামিনে মুক্তি পাবেন বলে আশাবাদী বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। তার এবক্তব্যের মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ।

তারা বলেছেন, খালেদা জিয়ার বিচার করছেন আদালত। জামিন বা শাস্তি দেয়ার বিষয়টিও আদালতের। আর বিএনপি বলছে আদালত স্বাধীন না। সরকারের হস্তক্ষেপের কারণে খালেদা জিয়ার জামিন হচ্ছে না। এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, তিনি একজন বিজ্ঞ আইনজীবী, তিনি হয়তো ধারণা করেই বলেছেন। এক্ষেত্রে বিচার সম্পূর্ণটাই আদালত করেছেন। তাকে (খালেদা জিয়া) শাস্তি দিয়েছেন আদালত। জামিন দেওয়ার দায়িত্বও আদালতের। আমরা সবসময় আদালতকে সম্মান প্রদর্শন করি। তাই আদালতের রায় সর্বশেষ বিচার হিসেবে গণ্য হবে।

বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা মনে করেন, আদালতের ওপর সরকারের হস্তক্ষেপের কারণে তিনি মুক্তি পাচ্ছেন না। রাজনৈতিক প্রতিহিংসাই এর প্রধান কারণ। দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, এটা স্পষ্ট বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর প্রতিহিংসার কারণেই খালেদা জিয়ার মুক্তি মিলছে না। তিনি যখনই ইচ্ছা করবেন তখনই নেত্রী মুক্তি পাবেন। এটাতো আমি সব সময় বলে আসছি।

দলের ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আহমদ আযম বলেন, খালেদা জিয়ার নামে যত মামলা সবই রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে করা হয়েছে। প্রতিটি মামলায় তার জামিন প্রাপ্য। কিন্তু তাকে তার অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, একজন নেত্রী যিনি গণতন্ত্রের জন্য দীর্ঘ আন্দোলন করলেন, এখনো করে যাচ্ছেন। কোনো আপোস না করে বিনাদোষে কারাবন্দী হলেন। দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে এনে সংসদীয় সরকার প্রতিষ্টা করেছেন। সেই নেত্রীকে আজ কারাবন্দী হতে হলো কি কারণে? একমাত্র গণতন্ত্র ও মানুষের ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলনের জন্য জীবনের শেষ প্রান্তে তাকে কারাগারে থাকতে হচ্ছে। তিনি বলে আমার প্রশ্ন, খালেদা জিয়া তিনি বারের প্রধানমন্ত্রী। তিনি স্বৈরাচার হটিয়ে গণতন্ত্র ফিরিয়েছেন। দেশকে উন্নয়ন ও অগ্রগতির জন্য কাজ করে গেছেন। জনপ্রিয় এই নেত্রীকে সর্ম্পূণ বিনাদোষে সাজা দিয়ে কারাগারে পাঠানো হলো। বিএনপির একমাত্র নারী সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা একই ধরণের মন্তব্য করে বলেন, ম্যাডাম জামিনের হকদার। কারণ তার বয়স, দেশের জন্য তার যে ত্যাগ, তার মামলা সব কিছু নিয়ে তিনি জামিন পাওয়ার অধিকার রাখেন। কিন্তু একমাত্র প্রধানমন্ত্রীর প্রতিহিংসার কারণেই, শুধুই তার কারণেই ম্যাডামের মুক্তি বাধাগ্রস্থ হচ্ছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত