প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

খেলাপিদের ঋণমুক্তির নতুন ব্যবস্থা নীতিমালার লংঘন, বলেছেন ইব্রাহিম খালেদ

মো. আল-আমিন: দেশে ঋণ খেলাপিদের জন্য সরকার বেশ কিছু সুবিধার ঘোষনা দিয়েছেন। যেসব ভালো ব্যবসায়ী ঋণ নিয়ে পরিশোধ করতে পারেননি তারা মে মাস থেকে মোট ঋণের ২ শতাংশ ডাউন পেমেন্ট দিয়ে বাকি টাকা ১২ বছরে পরিশোধের সুযোগ পাবেন। এক্ষেত্রে সুদহার চক্রবৃদ্ধি না হয়ে সরল সুদে ৭ শতাংশ হবে। যদিও এসব ঋণ তারা ১০-১২ শতাংশ সুদে নিয়েছেন।

এ সর্ম্পকে বিবিসি’কে বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর ইব্রাহিম খালেদ বলেন, আমাদের ব্যাংকগুলোর খেলাপি ঋণ বড় সংকট। তবে যেটা করা হলো এতে সংকট আরো ঘনিভূত হতে পারে। কারণ এর আগেও এটা একবার পুর্নগঠন করা হয়েছিল। ৫০০ কোটি টাকার বেশি যাদের খেলাপি ঋণ ছিল তারা সুযোগ পেয়েছিল। তখন বলা হয়েছিল পর পর তিনটি কিস্তি খেলাপি হলে তখন পুরো টাকা কলব্যাক করা হবে এবং পরবর্তীতে তাদের আর কোনো সুযোগ দেয়া হবে না।

তিনি বলেন, এখন আবার সেই ঋণখেলাপিরা সুযোগ পেলে ভাববে ভবিষৎতে হয়তো আরো সুযোগ পাওয়া যাবে। আর এতে করে ঋণ খেলাপি কমবে না বরং তাদের অনেকটা লুকিয়ে রাখার মত হলো। এর চাইতে খেলাপি ঋণ অবলোপন করা অনেক ভালো। এটা তো নীতিমালার লংঘন বলে মনেকরি।

তিনি আরো বলেন, এটা মানুষকে খুব খারাপ একটা বার্তা দিবে এবং তারা মনে করবেন ঋণ খেলাপীদের মধ্যে খুব বড় বড় যারা তারা সরকারকে প্রভাবিত করার ক্ষমতা রাখে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত