প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শিক্ষাখাতের বরাদ্দে দক্ষিণ এশিয়াতে আমরাই পিছিয়ে

রুহিন হোসেন প্রিন্স : আমাদের এবারের বাজেটেও শিক্ষা, চিকিৎসা ও কৃষিখাতে আকাঙ্খা অনুযায়ী বাজেট হয়নি। এর প্রধান কারণ হলো, এই বাজেট প্রকৃতপক্ষে সাধারণ মানুষের জন্য করা হয়নি। এটা মূলত ধনী ও ব্যবসায়ী শ্রেণিদের স্বার্থ রক্ষায় করা হয়েছে। মধ্যবিত্ত মি¤œ মধ্যবিত্তসহ সাধারণ মানুষের ওপর করের বোঝা চাপিয়ে তাদের কাছথেকে অর্থ আয় করে নিচ্ছে। এই কারণেই আমরা দেখতে পারি- শিক্ষা, স্বাস্থ্য এবং অন্যান্য খাতে যে পরিমাণ বরাদ্দের কথা ছিলো, তা তারা করেননি। আমাদের ঢাক ঢোল পিটিয়ে বলা হচ্ছে, শিক্ষাখাতে অনেক বরাদ্দ দিয়েছে। তবে শিক্ষা ও প্রযুক্তিখাতে যেমন বাজেট হওয়ার দরকার ছিল, তেমনটা হয়নি। দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে আমাদের দেশের শিক্ষাখাতের বরাদ্দ সবচেয়ে কম।

পৃথিবীর অনেক ক্ষুদ্র দারিদ্র্য দেশেও যে পরিমাণ শিক্ষাখাতে বরাদ্দ দেওয়া হয়, আমাদের দেশে তারচেয়েও কম বরাদ্দ দেওয়া হয়। আমাদের জাতীয় আয়ের মাত্র ২.২% বরাদ্দ শিক্ষাখাতে দেওয়া হয়েছে। এই অপ্রতুল বরাদ্দ দিয়ে আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থাকে উন্নত করা সম্ভব নয়। আমাদের চিকিৎসা ব্যাবস্থাতেও একটা নৈরাজ্যজনক অবস্থা চলছে। এ থেকে স্বাস্থ্যখাতকে উদ্ধার করতে গেলে, প্রথমেই স্বাস্থ্যখাতের নৈরাজ্য দূরীকরণের উদ্যেগ নিতে হবে এবং এটি অব্যাহত রাখতে হবে। সবচেয়ে ক্ষোভের বিষয় হচ্ছে, এসব বরাদ্দকৃত টাকা দেবার পরেও সেই টাকা যে ওই খাতেই ব্যবহার হচ্ছে, তারও কোনো নিশ্চয়তা নেই।

পরিচিতি : সম্পাদক সিপিবি/মতামত গ্রহণ : তাওসিফ মাইমুন/সম্পাদনা : জাফরুল আলম

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত