প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

যুদ্ধজাহাজ ডোবানো উত্তর কোরীয় জেনারেলের অলিম্পিক সফর ঘিরে উত্তেজনা

আনন্দ মোস্তফা: পিয়ংচ্যাং শীতককালীন অলিম্পিকের সমাপনী অনুষ্ঠান উপলক্ষে উত্তর কোরিয়ার এক উচ্চপদস্থ জেনারেলের সফর ঘিরে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে দক্ষিণ কোরিয়া। ২০১০ সালে দক্ষিণ কোরীয় একটি যুদ্ধজাহাজ ডোবানোর নেতৃত্ব দিয়েছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে কিম ইয়ং চল নামের ওই জেনারেলের বিরুদ্ধে। সেই অভিযোগে তার ফাঁসির দাবিতে শুক্রবার বিক্ষোভ করেন দক্ষিণ কোরিয়ার সংসদ সদস্যরা।

রোববার আট সদস্যবিশিষ্ট উত্তর কোরিয়ার একটি প্রতিনিধি দলের নেতা হিসেবে কিম ইয়ং চল এর অলিম্পিকের সমাপনী অনুষ্ঠানে যোগ দিতে দক্ষিণ কোরিয়া পৌঁছানোর কথা রয়েছে।

দক্ষিণ কোরিয়ার বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি আক্রমণের জন্য কিম ইয়ং চলের বিরুদ্ধে অভিযোগ আছে, বিশেষত আট বছর আগে দেশটির ‘চিওনান করভেট’ জাহাজটি টর্পেডো হামলায় ডুবিয়ে দেয়ার জন্য তাকে দায়ী করা হয়। সে ঘটনায় ৪৬ জন নিহত হয়।

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের বাসভবন রøু-হাউজের সামনে রক্ষণশীল লিবার্টি কোরিয়া পার্টির প্রায় ৭০ জন এমপি বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। তারা প্রেসিডেন্ট মুন জা-ইনের কাছে কিমের সফর বাতিল করার দাবি জানান।

এক বিবৃতিতে পার্টির সংসদীয় নেতা কিম সুং-তায়ে বলেন, কিম ইয়ং চল একজন নারকীয় যুদ্ধাপরাধী। তাকে রাস্তায় ফাঁসিতে ঝোলানো উচিত।

কিম ইয়ং চল উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান ও আন্তঃকোরীয় সম্পর্কের জন্য দায়িত্বপ্রাপ্ত ইউনাইটেড ফ্রন্ট ডিপার্টমেন্টের প্রধান। এর আগে তিনি দেশটির গোয়েন্দা সংস্থার প্রধান ছিলেন। উত্তর কোরীয় এই সামরিক গোয়েন্দা সংস্থাটিকে ‘চিওনান করভেট’ জাহাজটি ডুবিয়ে দেওয়ার জন্য দায়ী করে দক্ষিণ কোরিয়া। এএফপি, রয়টার্স

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত