শিরোনাম

প্রকাশিত : ০৫ জুলাই, ২০২২, ১১:৩৪ দুপুর
আপডেট : ০৫ জুলাই, ২০২২, ১১:৩৪ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

কুমিরের পেটে কিশোর, গুজবে করা হলো এক্সরে

কুমিরের পেটে কিশোর

মাজহারুল ইসলাম : ভারতের উত্তরাখণ্ডের কুমায়ুন এলাকার ইউএস নগরে এক কিশোরকে কুমির খেয়ে ফেলেছে বলে খবর রটে যায়। এমন খবরে রোববার (৩ জুলাই) সন্ধ্যায় ওই কুমিরটিকে পিটিয়ে মেরেছে গ্রামবাসী। ঢাকা পোস্ট

গ্রামবাসীর অভিযোগ, নদীর ধারে এক রাখালকে খেয়ে ফেলেছে কুমিরটি। তারপরই গ্রামবাসীর রাগ গিয়ে পড়ে ওই কুমিরটির ওপর।

কুমায়ুনের তরাই পূর্ব ফরেস্ট ডিভিশনের ডিএফও সন্দীপ কুমার জানান, ফরেস্ট কর্মকর্তারা কুমিরটিকে গ্রামবাসীদের হাত থেকে রক্ষা করার চেষ্টা করেছিলেন। 

গ্রামবাসীর দাবি, ওই কুমিরকে এক্সরে করে দেখতে হবে তার পেটের ভেতরে কিশোরের হাড়গোড় কিছু আছে কি না। পশু চিকিৎসকরা কুমিরটিকে বাঁচানোর চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু এক্সরে করার পর পরই সেটি মারা যায়। 

তবে ভারতের বন দপ্তর জানিয়েছে, এক্সরেতে দেখা গেছে কুমিরের পেটে কিশোরের কোনো দেহাবশেষ নেই।

ভারতের বন দপ্তর সূত্র জানায়, রোববার সন্ধ্যায় নদীর ধারে মহিষ চড়াচ্ছিল ১২ বছরের এক কিশোর। এরপর একটি মহিষ নদীতে নেমে পড়ে। মহিষটিকে বাঁচাতে ওই কিশোর তখন নদীতে নেমে পড়ে। এরপরই তার চিৎকার শোনা যায়। পরে আর তাকে দেখা যায়নি। এতে গ্রামবাসী উত্তেজিত হয়ে জাল নিয়ে নদীতে নেমে প্রায় ১০ ফুট লম্বা একটি কুমিরকে ধরে ফেলে। এরপর নদীর পাড়ে কুমিরকে এনে তারা মারতে শুরু করে। তারা ভেবেছিল ওই কুমিরটিই কিশোরকে গিলে ফেলেছে। এ সময় কুমিরের পেট কেটে কিশোরকে বের করার পরিকল্পনা করেছিল তারা।

ডিএফও জানিয়েছেন, কিশোরের খোঁজ চলছে। যারা কুমির মেরেছিল তাদের বিরুদ্ধে এফআইআর হয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়