শিরোনাম
◈ সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত ◈ সালাম মুর্শেদীর বাড়ির মাস্টার প্ল্যান দাখিল করতে রাজউককে নির্দেশ ◈ নাশকতার মামলায় ফখরুল-আব্বাসের স্থায়ী জামিন  ◈ তুরস্ক-সিরিয়ায় ভূমিকম্প: ২৫ মিলিয়ন ডলার সহায়তার ঘোষণা জাতিসংঘের  ◈ আদর্শ প্রকাশনীর মুচলেকা: স্টল বরাদ্দের নির্দেশ হাইকোর্টের ◈ এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশ  ◈ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বেলজিয়ামের রানির সৌজন্য সাক্ষাৎ ◈ কন্টেইনারে করে মালয়েশিয়ায়: দেশে ফিরিয়ে আনা হচ্ছে কিশোর রাতুলকে ◈ ড্র্রোনে ভূমিকম্পের ধ্বংসলীলার ভয়াল চিত্র, মৃতের সংখ্যা বেড়েছে ৮ হাজার ◈ ৭ মাত্রার ভূমিকম্পে ঢাকায় ৩ লাখ মানুষের মৃত্যুর শঙ্কা

প্রকাশিত : ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ০২:০৬ দুপুর
আপডেট : ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ০২:০৬ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

ফ্রিল্যান্সিং কাজে বেড়ে চলছে অর্থ জামানতের প্রতারণা

ফ্রিল্যান্সিং

সঞ্চয় বিশ্বাস : বর্তমানে চাকরির বাজারে নতুন প্রজন্মের ফ্রিল্যান্সিং কাজ হয়ে উঠেছে অনেক জনপ্রিয়। ঘরে বসে অনলাইনের মাধ্যমে বিভিন্ন দেশের ক্লায়েন্টদের কাজ করতে পারায় অনেক তরুণ তরুণী বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসে কাজ করছেন। 

ঘরে বসে বিদেশের তথ্যপ্রযুক্তির নানা কাজ করে আয় করেন ফ্রিল্যান্সার বা মুক্ত পেশাজীবীরা। তাই ফ্রিল্যান্সিং করাকে পুরোদস্তুর পেশা হিসেবে নিয়েছেন অনেকেই। সফলও হচ্ছেন তাঁরা।

ফ্রিল্যান্স মার্কেটপ্লেসে কাজ করার জন্য কোনো জামানতের প্রয়োজন হয় না। বিভিন্ন কাজের দক্ষতা, কঠোর পরিশ্রম, মেধা, সময়, বাসায় কম্পিউটার ইন্টারনেট সংযোগ থাকলেই এই কাজে সফল হওয়া যায়। আর তাঁদের সাফল্য দেখে অনেকেই সরকারি বা বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে ফ্রিল্যান্স মার্কেটপ্লেসে কাজ খুঁজে থাকেন। তবে নতুনদের অনেকেই না জেনে ফ্রিল্যান্স মার্কেটপ্লেসে বিভিন্ন ক্লায়েন্টের মাধ্যমে প্রতারণার শিকার হয়ে থাকেন।

নতুন ফ্রিল্যান্সারদের অনেকেরই নির্দিষ্ট কাজে দক্ষতা না থাকায় টাইপের কাজ করে দ্রুত আয় করতে চান। আর তাঁদের এই দুর্বলতার সুযোগ নেন মার্কেটপ্লেসে থাকা অনেক ক্লায়েন্ট। কাজ দেওয়ার নামে বেশ কিছু শর্তও দেন তাঁরা, যার মধ্যে অর্থ জামানত রাখা অন্যতম।

১০ থেকে ২০০ ডলার জমা রাখলেই পৃষ্ঠাপ্রতি ৮০ ডলার পর্যন্ত পারিশ্রমিক দেওয়ার প্রলোভন দেখান তাঁরা। ফলে নতুন ফ্রিল্যান্সাররা হন্যে হয়ে চেষ্টা করেন কীভাবে জামানতের অর্থ পাঠানো যায়। এখানেই সব থেকে বড় ভুল করেন নতুন ফ্রিল্যান্সরা। কারণ, ফ্রিল্যান্স মার্কেটপ্লেসে টাকা জামানত রাখা বেশির ভাগ মানুষ প্রতারণার শিকার হন। বিষয়টি জানা থাকায় এসব ক্লায়েন্টকে এড়িয়ে চলেন মার্কেটপ্লেসে দীর্ঘদিন কাজ করা ফ্রিল্যান্সাররা। তবে নতুনরা দ্রুত আয় করার আশায় প্রতারকদের দেওয়া ফাঁদে পা দেন।

মনে রাখতে হবে ভালো ক্লায়েন্টরা সব সময় ভালো মানের কাজ চান। এ জন্য তাঁরা আপনার যোগ্যতা সম্পর্কে নিশ্চিত হতে বিভিন্ন কাজের নমুনা পরীক্ষা করেন। দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা যাচাই করেই কাজ দেন তাঁরা। কখনোই ফ্রিল্যান্সারদের অর্থ জামানত রাখতে বলেন না। তাই ফ্রিল্যান্স মার্কেটপ্লেসে নিরাপদ থাকতে ক্লায়েন্ট কোন ধরনের কাজ আপনাকে দিয়ে করাতে চাইছেন বা তাঁর শর্ত সম্পর্কে আগে থেকেই ভালোভাবে জানতে হবে।

ফ্রিলান্সিং কাজে সফল হতে জামানত নই নিজেকে একটি কাজে দক্ষ করে তুলতে  হবে। আর দক্ষতা কঠোর পরিশ্রমের ফলেই এই কাজে সফল হওয়া সম্ভব।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়