শিরোনাম
◈ ঘন কুয়াশায় দৌলতদিয়া-পাটুরিয়ায় ফেরি চলাচল বন্ধ ◈ নো ম্যানস ল্যান্ডে থাকা রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশ প্রবেশে নিবন্ধন প্রক্রিয়া শুরু ◈ পুলিশ কর্মকর্তার গুলিতে আহত উড়িষ্যার মন্ত্রীর মৃত্যু ◈ কারাগারে অসুস্থ রিজভীর শারীরিক অবস্থার অবনতি ◈ যুক্তরাষ্ট্র ও ইইউ’র উদ্দেশ্যে তুরস্কের পাল্টা ভ্রমণ সতর্কতা ◈ প্রমোদতরী গঙ্গা বিলাস কলকাতায়, মঙ্গলবার আসবে বাংলাদেশে ◈ ভোটের অধিকার ও গণতন্ত্র পনরুদ্ধারে আমরা একমত হয়েছি: মির্জা ফখরুল  ◈ মায়ের কাছেই থাকবে দুই জাপানি শিশু, মামলা খারিজ ◈ নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে জেরুজালেমে হাজার হাজার মানুষের বিক্ষোভ ◈ খোঁজ মিলছে না উকিল আবদুস সাত্তারের প্রতিদ্বন্দ্বী আসিফের

প্রকাশিত : ০২ ডিসেম্বর, ২০২২, ০৩:৫৬ দুপুর
আপডেট : ০৩ ডিসেম্বর, ২০২২, ০৪:৪৮ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

সবাই নেতা, কর্মী কই? এই ছাত্রলীগ চাই না: ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের

জেরিন আহেমদ: ছাত্রলীগের যৌথ বার্ষিক সম্মেলনে অংশ নিয়ে ক্ষুব্ধ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের উদ্দেশে প্রশ্ন রেখে বলেন, এটাই কি ছাত্রলীগ! কোনো শৃঙ্খলা নেই! পোস্টার নামাতে বলছি, নামায় না, স্লোগান থামায় না! এই ছাত্রলীগ আমার চাই না।

এ সময় ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, সব নেতা, তাহলে কর্মী কোথায়! এত নেতা স্টেজে? শেখ হাসিনার ছাত্রলীগ, বঙ্গবন্ধুর ছাত্রলীগ, এই ছাত্রলীগ না। মুজিব কোট পরলেই মুজিব সৈনিক হওয়া যায় না। মুজিব সৈনিক হতে হলে মুজিবের আদর্শের সৈনিক হতে হবে। শেখ হাসিনার খাঁটি কর্মী হতে হবে। খাঁটি কর্মী বিশৃঙ্খলা করে না। সব নেতা হয়ে গেছে। এ সময় কমিটির সদস্য ছাড়া সবাইকে মঞ্চ ছেড়ে চলে যেতে বলেন তিনি।

তিনি বলেন, আজকে নানকের মতো, আপনাদের দায়িত্বপ্রাপ্ত, প্রেসিডিয়াম, সাবেক মন্ত্রী, যুবলীগের সাবেক চেয়ারম্যান, ছাত্রলীগের প্রাক্তণ সাধারণ সম্পাদক সময়ের অভাবে বক্তৃতা করতে পারেনি। আপনারা মাইক ধরলে ছাড়েন না। এই ছাত্রলীগ আমরা চাই না। সুশৃঙ্খল করুন, সুসংগঠিত করুন। কথা শুনবে না, এই ছাত্রলীগ আমাদের দরকার নেই। অপকর্ম করবে এই ছাত্রলীগ দরকার নেই। দুর্নামের ধারা থেকে ছাত্রলীগকে সুনামের ধারায় ফিরিয়ে আনতে হবে এটাই আজকে অঙ্গীকার।

কারা নির্যাতিত নেতা, আমাদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বক্তৃতা দিতে পারেননি। আমন্ত্রিত অনেকেই বক্তৃতা দিতে পারেননি। তাহলে দাওয়াত দিলেন কেন? একটু একটু করে বলতে পারলো না! আপনারা দুজনে ১ ঘণ্টা শেষ করলেন। মনে নেই, আজ শুক্রবার! লেখকের না হয় মনে নেই, জয়ের কি মনে ছিল না! এটা কোন ছাত্রলীগ, বিস্ময় প্রকাশ করে বলেন কাদের।

এ সময় কর্মীদের স্লোগানে বিরক্ত হয়ে তিনি বলেন, যার নামে স্লোগান হবে তাকে পদ দেওয়া হবে না। সম্পাদনা: মাজহারুল ইসলাম

জেএ/এমআই/এনএইচ

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়