শিরোনাম

প্রকাশিত : ০১ ডিসেম্বর, ২০২২, ০১:৩৫ দুপুর
আপডেট : ০১ ডিসেম্বর, ২০২২, ১১:২৯ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

বিএনপির আগুন, লাঠি, দুর্নীতি ও ভোট চুরির বিরুদ্ধে খেলা হবে: কাদের

মহসীন কবির: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ডিসেম্বরে বিএনপি, আগুন ও লাঠির বিরুদ্ধে খেলা হবে। বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) দুপুরে গোপালগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘নির্বাচনে খেলা হবে। ডিসেম্বরে বিএনপি, আগুন আর লাঠির বিরুদ্ধে খেলা হবে। দুর্নীতির বিরুদ্ধে, ভোট চুরির বিরুদ্ধে, ভুয়া ভোটার তালিকার বিরুদ্ধে, হাওয়া ভবনের বিরুদ্ধে খেলা হবে। হাওয়া ভবনের আরেক নাম খাওয়া ভবন।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, তারেক রহমান ওয়ান-ইলেভেনের জরুরি সরকারের কাছে রাজনীতি থেকে বিদায় নেয়ার মুচলেকা দিয়ে লন্ডনে পাড়ি জমিয়েছে। অর্থ পাচার করে এফবিআইয়ের কাছে ধরা খেয়েছে। এফবিআই ঢাকা আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছে সিঙ্গাপুরে অনেক অর্থ পাওয়া গেছে। সেই লন্ডনে বসে শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে, বাংলাদেশের বিরুদ্ধে, মুক্তিযুদ্ধের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, কারা বাংলাদেশ থেকে কত টাকা পাচার করেছে সব প্রধানমন্ত্রী খতিয়ে দেখছেন। এই টাকা উদ্ধার করা হবে, টাকা পাচারকারী তারেক রহমানসহ যারা আছে, প্রত্যেকের টাকা উদ্ধার করা হবে।

ফখরুল এখন নাটক শুরু করছে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, কোথাও সমাবেশ দিয়ে সাত দিন আগে থেকে প্রচার করে তাদের সমাবেশে বাধা দেয়া হচ্ছে, সরকার বাধা দিচ্ছে। কুমিল্লায় তো কেউ বাধা দেয়নি, পরিবহনও বন্ধ ছিল না। বিএনপির সমাবেশ করার স্বার্থে ছাত্রলীগের সমাবেশ পেছানো হয়েছে।

সমাবেশের জন্য মুক্তিযুদ্ধের ঘোষণাস্থল, ৭ মার্চের ভাষণ ও পাক হানাদার বাহিনী যেখানে আত্মসমর্পণ করেছিল, সেই সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করছে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, তারা আসলে মুক্তিযুদ্ধে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন না। মুক্তিযুদ্ধের নাম শুনলে তাদের বুকের জ্বালা, অন্তরের জ্বালা বেড়ে যায়। ফখরুলের মুখে মধু, অন্তরে বিষ।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ফখরুল সাহেব অনুমতি চেয়েছেন। অনুমতি দেয়া হয়েছে। সমাবেশে কেউ ডিস্টার্ব করবে না। আমরা রাজশাহীতে বলে দিয়েছি পরিবহন ধর্মঘট যেন না করে। ঢাকায়ও পরিবহন ধর্মঘট হবে না, নেত্রী বলে দিয়েছেন। এর পরও যদি মারামারি, লাফালাফি ও আগুন নিয়ে রাস্তায় নামেন, লাঠির সঙ্গে বাংলাদেশের পতাকা বেঁধে মাঠে নামেন, তাহলে তা প্রতিহত করা হবে।’

আওয়ামী লীগ পাল্টাপাল্টি সমাবেশ করবে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমরা ক্ষমতায় আছি, ক্ষমতায় থেকে কেন আমরা অশান্তি সৃষ্টি করব। কেন আমরা আতঙ্ক সৃষ্টি করব। আমরা তো মানুষকে শান্তিতে রাখতে চাই। কারণ, আমরা ক্ষমতায় আছি। আমি বিএনপিকে আবার বলতে চাই, পরের নির্বাচনে আসুন।’

কাদের বলেন, ‘মির্জা ফখরুল সরকারকে বলেছে সেফ এক্সিট (নিরাপদ প্রস্থান) নিতে। আমি বলতে চাই, সেফ এক্সিটের একমাত্র পথ হচ্ছে নির্বাচন। নির্বাচনেই প্রমাণ হবে কারা বিজয়ী হবে আর কাদের পতন হবে। সরকার পতনের হাঁকডাক দিয়ে কোনো লাভ নেই।’

যুদ্ধ এবং নিষেধাজ্ঞার জন্য মানুষ কষ্টে আছে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ‘এটা শেখ হাসিনা নিজেই স্বীকার করেছেন। তিনি চেষ্টা করে যাচ্ছেন; কিন্তু এখনও বাংলাদেশে সোমালিয়া ও সুদানের মতো দুর্ভিক্ষ হয়নি। এখনও আমরা অনেক দেশের তুলনায় ভালো আছি। শেখ হাসিনা ভালো থাকলে বাংলাদেশ ভালো থাকবে।’ সময়, ডিবিসি টিভি

 

 

 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়