শিরোনাম
◈ শেষ বলের রোমাঞ্চে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের কাছে খুলনার হার ◈ ভারতে একদিনে ৩ যুদ্ধবিমান বিধ্বস্ত, পাইলট নিহত ◈ ৮৫ বছর পর বন্ধ হচ্ছে বিবিসি আরবি রেডিও সম্প্রচার ◈ ভারত গরু না দিলেই বরং আমরা কৃতজ্ঞ থাকব: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ◈ বাংলাদেশকে নিয়ে প্রথম লক্ষ্য সেট করেছেন শেখ হাসিনা: আইনমন্ত্রী  ◈ বাংলাদেশিকে মারধর, কুয়েত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা গ্রেপ্তার ◈ অবিলম্বে পদত্যাগ করুন, পালাবার পথ পাবেন না: মির্জা ফখরুল ◈ শান্তিরক্ষা মিশনে যাচ্ছেন ৪৬০ পুলিশ কর্মকর্তা ◈ নিউ ইয়র্কে ২৮ মিনিট ধরে কৃষ্ণাঙ্গকে পিটিয়ে হত্যা, ভিডিও ভাইরাল ◈ বিএনপির সঙ্গে আমরা খেলে জিততে চাই: তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত : ২৬ জানুয়ারী, ২০২৩, ০১:২৩ রাত
আপডেট : ২৬ জানুয়ারী, ২০২৩, ০১:২৩ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

নারীর নীরব, নিভৃত অভিমান

খুজিস্তা নূর-ই নাহারিন

খুজিস্তা নূর-ই নাহারিন: নারী সব সহ্য করতে পারে, কিন্তু অহংয়ে আঘাত লাগলে সহ্য করতে পারে না। স্বামীর দ্বিতীয় বিয়ে মেনে নিতে বাধ্য হলেও মনে নেওয়া এতোটা সহজ নয়। কবি আবু জাফর ওবায়দুল্লাহ মৃত্যু শয্যায় তার প্রথম স্ত্রীর কাছে ক্ষমা চেয়ে একটিবার শুধু চোখের দেখা দেখতে চেয়েছেন, কিন্তু পুতুল আপা সেই ডাকে সারা দেননি। আমাদের শ্রদ্ধেয় নেতা জলিল ভাইয়ের প্রথম স্ত্রী কর্মীদের কাছে অনেক প্রিয় ছিলেন। পরবর্তী সময়ে তিনি দেশের বাড়িতে থেকে সমস্ত দায়িত্ব তো পালন করতেন, কিন্তু কারো সামনে আসতেন না আর। সাবধানে কথা বলতেন তার গলার আওয়াজ যেন অন্য কেউ শুনতে না পায়। 

হুমায়ূন আহমেদ স্যার অ্যামেরিকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় প্রথম আলোতে নিয়মিত কলাম লিখতেন। একদিন লিখেছিলেন, ‘কান পেতে রই তার পায়ের আওয়াজ বুঝি শুনা যায়’। এই জাতিও কিছু একটা ঠিক মনে নেই। তবে কি তিনি গুলতেকিনের পায়ের আওয়াজ শুনতে চেয়েছিলেন? নিজ স্বার্থকে তৃপ্ত করার জন্য স্বামী যখন স্ত্রীর প্রতি অন্যায় করেন তখন জীবনের কোনো এক পর্যায়ে হয়তোবা অনুতপ্ত হন। 

নারী-পুরুষ সম্পর্ক এক জটিল ধাঁধা। মানুষের জীবনের এতোগুলো দিক থাকে চাওয়া থাকে যে সমস্ত চাওয়ার সাথে পাওয়ার দেখা মিলে কদাচিৎ। একজন মানুষ শেষ সময়ে একসময়ের প্রিয় মানুষের মুখ স্মরণ করতে চাইবে স্বাভাবিক। হোক আজ সে প্রিয় নয় কিন্তু একদিন হয়তো প্রিয় ছিল। নারীর অহং আর অভিমান থাকাও স্বাভাবিক। সউদের স্ত্রী হওয়া সত্ত্বেও সুবর্ণা কি ফরিদির মৃত্যু সংবাদে ছুটে যায়নি? সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন হওয়ার পরেও গেছে। তসলিমা নাসরিনও রুদ্রর মৃত্যুতে ছুটে গেছে তখন রুদ্র অন্য প্রেমিকা শিমুলের সাথে গভীর সম্পর্কে আবদ্ধ জেনেও। বিচ্ছেদের অনেক বছর পর গুলতেকিনও নুহাশ পল্লীতে কবর জিয়ারত করতে গেছে। মায়া, মমতা, ভালোবাসা কোনো নিয়মে বাধা যায় না। সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন করার পরেও অতি সংগোপনে কোথাও না কোথাও রয়েই যায়। আড়ালে-আবডালে উদাস দুপুরে একাকী কোন মধ্য রাতে মন কাঁদে। ফেসবুক থেকে

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়