শিরোনাম

প্রকাশিত : ২০ জুন, ২০২২, ০৩:১২ দুপুর
আপডেট : ২১ জুন, ২০২২, ১২:৩৮ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

পদ্মা সেতুর ১৩ রুটের বাস ভাড়া পুনর্নির্ধারণ

পদ্মা সেতু

ডেস্ক রিপোর্ট: পদ্মা সেতু হয়ে চলাচল করতে যাওয়া বাসের ভাড়া পুনর্র্নিধারণ করেছে সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)। গতকাল রোববার রাজধানীর সায়েদাবাদ টার্মিনাল থেকে মাওয়া ফেরিঘাট হয়ে চলে এমন ১২টি রুটের বাস ভাড়া পুনর্র্নিধারণ এবং চট্টগ্রাম-খুলনা, কক্সবাজার-বরিশাল ও চট্টগ্রাম-বরগুনা রুটের নতুন ভাড়ার তালিকা করা হয়েছে।

গত ৭ জুন সায়েদাবাদ থেকে মাওয়া ঘাট হয়ে চলা ১৩টি রুটের ভাড়ার তালিকা করেছিল বিআরটিএ। বহু বছরের পুরোনো রুট ধরে ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছিল। নতুন রাস্তা নির্মাণে দূরত্ব কমার বিষয়টি বিবেচনা করা হয়নি। সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের (সওজ) কাছ থেকে দূরত্ব এবং বিদ্যমান ফেরি ও সেতুর টোলের হালনাগাদ তালিকা ধরে গতকাল ভাড়া পুনর্র্নিধারণ করা হলো। ফলে আগের তালিকা থেকে ভাড়া কিছুটা কমবেশি হয়েছে।

ঢাকা-মাওয়া-ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়ের টোল কার্যকরের প্রজ্ঞাপন না হওয়ায় বিআরটিএ তা বাদ দিয়ে ভাড়া নির্ধারণ করেছে। বাসে ৪০ আসন ধরে ভাড়ার তালিকা করা হয়েছে। আসন কমলে ভাড়া বাড়বে। তবে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত বাসের জন্য এই ভাড়ার তালিকা কার্যকর নয়। এই বাসের ভাড়া মালিকরা নির্ধারণ করে থাকেন।

ঢাকার সায়েদাবাদ থেকে মাওয়া, ভাঙ্গা, মাদারীপুর হয়ে বরিশালের দূরত্ব ১৫৬ কিলোমিটার। ৭ জুনের তালিকায় এ রুটে ভাড়া করা হয়েছিল ৪১২ টাকা।

পুনর্র্নিধারিত তালিকায় তা ৪২১ টাকা হয়েছে। পদ্মা সেতুর ২ হাজার টাকা টোলসহ আগের তালিকায় এ পথে মোট ২ হাজার ১৭২ টাকা টোল ধরে ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে। কিন্তু এই পথে পদ্মা সেতু ছাড়াও অন্তত চারটি জায়গায় ৫৩০ টাকা টোল দিতে হয়। পুনর্র্নিধারিত তালিকায় তা সমন্বয় করা হয়েছে।

আগের তালিকায় ঢাকা-গোপালগঞ্জ রুট ভায়া ধরা হয়েছিল মাওয়া, ভাঙ্গা ও রাজৈর। ভাড়া ধরা হয়েছিল ৫০৪ টাকা। নতুন তালিকায় পদ্মা সেতু, মাওয়াকে ভায়া ধরায় ঢাকা-গোপালগঞ্জের দূরত্ব ৪৩ কিলোমিটার কমেছে। তাই এই রুটে ১৪৫ কিলোমিটারে পুনর্র্নিধারিত ভাড়া করা হয়েছে ৩৯২ টাকা। নতুন তালিকায় ঢাকা-খুলনার দূরত্ব কমেছে ৪০ কিলোমিটার। আগের তালিকায় ২৪৭ কিলোমিটার দূরত্বের জন্য যাত্রীপ্রতি ভাড়া ধরা হয়েছিল ৬৩৯ টাকা। নতুন তালিকায় ২০৭ কিলোমিটার দূরত্বের জন্য ভাড়া করা হয়েছে ৫৩৭ টাকা। ৭৩ কিলোমিটার দূরত্বের জন্য ঢাকা-শরীয়তপুরের ভাড়া ২২৬ টাকা।

ঢাকা-পিরোজপুর ৫৩২, বাগেরহাট হয়ে ঢাকা-পিরোজপুর ৫৮৩, ঢাকা-পটুয়াখালী ৫১৯, ঢাকা-মাদারীপুর ৩১৩, ঢাকা-সাতক্ষীরা ৬৫৪, ঢাকা-ফরিদপুর ২৯২, বাবুবাজার সেতু হয়ে শরীয়তপুর ২২৬ এবং ঢাকা-কুয়াকাটা ৭০১ টাকা ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে। আগের তালিকা থেকে ঢাকা-চরফ্যাসন রুট বাদ পড়েছে।

নতুন রুট কক্সবাজার থেকে চট্টগ্রাম, ফেনী, কুমিল্লা, পোস্তগোলা, পদ্মা সেতু, মাদারীপুর হয়ে বরিশালের দূরত্ব ৫৫৪ কিলোমিটার। ভাড়া ধরা হয়েছে ১ হাজার ৩৪৯ টাকা। চট্টগ্রাম থেকে ফেনী, কুমিল্লা, পোস্তগোলা, পদ্মা সেতু, মাদারীপুর হয়ে খুলনার দূরত্ব ৪৬৯ কিলোমিটার; ভাড়া ১ হাজার ১৪৯ টাকা  নির্ধারণ করা হয়েছে। চট্টগ্রাম থেকে ফেনী, কুমিল্লা, পোস্তগোলা, পদ্মা সেতু, ভাঙ্গা, বরিশাল, পটুয়াখালী হয়ে বরগুনার দূরত্ব ৪৯৫ কিলোমিটার; ভাড়া ১ হাজার ২২৩ টাকা। সূত্র: সমকাল 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়