শিরোনাম

প্রকাশিত : ০৫ জুলাই, ২০২২, ০৫:৪৯ বিকাল
আপডেট : ০৫ জুলাই, ২০২২, ০৫:৪৯ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

ট্রেন বিলম্বে আসায় ছাড়তে দেরি হয়েছে: স্টেশন ম্যানেজার

ট্রেন

শাহীন খন্দকার: ট্রেনের শিডিউল বিপর্যয়ে ঈদযাত্রায় ভোগান্তির মুখে পড়েছেন ঘরমুখো মানুষ। তবে কমলাপুর স্টেশন কর্তৃপক্ষ বলছে, কয়েকটি ট্রেন ছাড়া সবগুলো ট্রেনই শিডিউল অনুযায়ী ছেড়েছে। কমলাপুর রেল স্টেশনের ম্যানেজার মো. মাসুদ সারওয়ার বলেছেন, ঈদযাত্রা শুরু হয়েছে, শুধু রংপুর এক্সপ্রেস, নীল সাগর এক্সপ্রেস, ধুমকেতু এক্সপ্রেস ও সুন্দরবন এক্সপ্রেস বিলম্বে স্টেশনে আসায় ছাড়তে হয়েছে দেরিতে।

মঙ্গলবার (৫ জুলাই) সকালে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি। স্টেশন ম্যানেজার বলেন, নির্দিষ্ট সময়ে ট্রেন ছাড়ার সব প্রস্তুতি আমাদের রয়েছে। আশা করি সামনের দিনগুলোতে এ বিপর্যয় আর থাকবে না। তিনি আরও বলেন, গতকাল (সোমবার) যমুনা সেতুর ওপারে একটি ট্রেনের ইঞ্জিন বিকলের ঘটনা ঘটে। সে কারণে ট্রেন আসতে দেরি হওয়ায় কমলাপুর থেকে ছাড়তেও দেরি হয়।

এদিকে ঈদযাত্রার মঙ্গলবার (৫ জুলাই) সকালে ঢাকা থেকে রাজশাহীগামী ধুমকেতু এক্সপ্রেস সকাল ৬টায় কমলাপুর থেকে ছাড়ার কথা থাকলেও সেটি ছাড়ে দেড় ঘণ্টা পর, সকাল ৭টা ৩০ মিনিটে। মো. মাসুদ সারওয়ার বলেন, একটা সময় ছিল যখন সকালের ট্রেন বিকেলে, বিকেলের ট্রেন রাত ১২টায় বা পরের দিন আসত। এখন সে অবস্থার পরিবর্তন হয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা চাই মানুষের ঈদযাত্রা নিরাপদ হোক। সবাই প্রিয়জনের সাথে ঈদ করার জন্যই বাড়ি যায়, এতে যেন কোনো বিঘ্ন না ঘটে। সব ধরনের প্রস্তুতি আছে আমাদের। অনাকাঙ্খিত কোনো ঘটনা না ঘটলে বা দুর্ঘটনা না হলে আমরা ঈদযাত্রার বাকি দিনগুলোতে ঠিক সময়েই ট্রেন ছাড়তে পারবো।

গত ১ জুলাই শুরু হয় ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি। সেদিন দেয়া হয় ৫ জুলাইয়ের ট্রেনের টিকিট। এরপর ২ জুলাই দেয়া হয় ৬ জুলাইয়ের টিকিট, ৩ জুলাই দেয়া হয় ৭ জুলাইয়ের টিকিট, ৪ জুলাই দেয়া হয় ৮ জুলাইয়ের টিকিট। আজ ৫ জুলাই দেয়া হচ্ছে ৯ জুলাইয়ের ট্রেনের টিকিট। শেষদিনেও কমলাপুরে উপচে পড়া ভিড় রয়েছে।

এছাড়া ফিরতি টিকিট বিক্রি শুরু হবে আগামী বৃহস্পতিবার থেকে। ওই দিন ১১ জুলাইয়ের টিকিট বিক্রি হবে। ৮ জুলাই ১২ জুলাইয়ের টিকিট, ৯ জুলাই দেওয়া হবে ১৩ জুলাইয়ের টিকিট আর ১১ জুলাই ১৪ এবং ১৫ জুলাইয়ের টিকিট বিক্রি হবে।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়