শিরোনাম

প্রকাশিত : ০৭ আগস্ট, ২০২২, ০২:১৯ রাত
আপডেট : ০৭ আগস্ট, ২০২২, ০২:১৯ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

সিনেমা নিয়ে উন্মাদনা সৃষ্টি করেছে ঈদের ছুটি, অনন্ত জলিল

আনিস আলমগীর

আনিস আলমগীর: মাঝে মাঝে সোশ্যাল মিডিয়ায় বাংলা সিনেমার জয়জয়কার আওয়াজ ওঠে। সেই আওয়াজে আমি গিয়াসউদ্দিন সেলিমের ‘মনপুরা’ দেখেছিলাম, সর্বশেষ হলে বাংলা সিনেমা হিসেবে তার ‘স্বপ্নজাল’ দেখেছি। মনপুরা ভালো লেগেছে, স্বপ্নজালও অনেক ভালো সিনেমা হয়েছে। তবে কলকাতার দর্শকদের ধরার উদ্দেশ্যে স্বপ্নজালের কাহিনিতে হিন্দু-মুসলিম অতিরঞ্জন ছিল। পরিচালককে সেটা সামনাসামনি বলেছিও, যতোটুকু মনে পড়ে তিনি একেবারে অস্বীকার করেননি। স্বপ্নজালের আগে পুলিশের পয়সায় তৈরি ‘ঢাকা এ্যাটাক’ সিনেমা দেখেছিলাম। সেখানে পুলিশের চরিত্র ভালো করে দেখানো হয়েছিলো, কিন্তু সাংবাদিকের চরিত্রে বাস্তবতা ছিলো কম। 

এই ঈদের পর থেকে আবার বাংলা সিনেমা দেখার ধুম পড়েছে মনে হচ্ছে। আমার ধারণা, এই উন্মাদনা অতি সহসা ‘হাওয়া’ সিনেমার পর হাওয়ায় মিশে যাবে। কারণ এই উন্মাদনা সৃষ্টি করেছে ঈদের ছুটি, অনন্ত জলিল। তারপর ছবিগুলোর নিজস্ব গুণের কথা বলতে হবে। এই উন্মাদনার ধারাবাহিকতা ধরে রাখার মতো সিনেমা বাংলাদেশে তৈরি হচ্ছে না। একটা জিনিস আমি খেয়াল করলাম, ক’বছর পর পর বাংলা সিনেমার পালে হাওয়া আনার জন্য অনন্ত জলিলের অবদান আছে, যদিও মিডিয়ায় এই নিয়ে কোনো গবেষণা নেই। সোশ্যাল মিডিয়ায় কিছু  ভিডিও ক্লিপ দেখা ছাড়া অনন্তর সিনেমা আমার এখনো দেখা হয়নি। 

অনন্ত জলিল এবং বর্ষা নিজেদের সিনেমাকে নিয়ে যখন পর্দায় আসেন, তার আগে ব্যাপক প্রচারণায় অংশ নেন। সরাসরি দর্শকদের কাছে চলে যান। অনন্ত জলিলকে নিয়ে প্রশংসা, ট্রল আর তার ছবির হাসি রস মিলিয়ে সিনেমার ভালই প্রচার হয়। সেই সঙ্গে বাংলা সিনেমা নিয়ে সবাই আলাপ-আলোচনা উচ্চবাচ্য করেন।

‘দিন : দ্য ডে’Ñ ঈদে অনেক মানুষকে হলমুখি করেছে। পরাণ সিনেমা তার ভাগিদার হয়েছে। সেই হাওয়াতে ‘হাওয়া’ও ভালো সিনেমা হিসেবে ঝড় তুলেছে। ঈদ এবং ঈদ পরবর্তী চারটি বাংলা সিনেমার কোনোটিই আমার দেখা হয়নি। দেখার ইচ্ছাও নেই। একজন পরাণ দেখানোর অফার করায় বলেছি, না। ‘হাওয়া’ যদি হয় দেখতে পারি, সিনেমা খারাপ হলেও অন্তত সাগর দেখছি বলে সান্ত্বনা দেওয়া যাবে মনকে। আমার অনেক দিনের ইচ্ছে ট্রলারে করে জেলেদের সঙ্গে মাছ ধরি। তিনি এখন বলছেন, পরাণের টিকেট পেয়েছি, আগে পরাণ দেখো। হাওয়াও টিকেট পেলে দেখাবো। আমি বিনা পয়সা আলকাতরা খাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছি। দেখি হজম হয় কিনা। লেখক: সাংবাদিক। ফেসবুক থেকে 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়