শিরোনাম

প্রকাশিত : ০৭ আগস্ট, ২০২২, ০২:১২ রাত
আপডেট : ০৭ আগস্ট, ২০২২, ০২:১২ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

শ্রীলঙ্কার পরিণতি ঠেকানোর কাজ কি শুধু জনগণের?

শরিফুজ্জামান শরীফ

শরিফুজ্জামান শরীফ: সরকার থেকে সুবিধা পাওয়া একটি গোষ্ঠী জ্বালানি উপকরণের দাম বাড়ানোর পক্ষে যুক্তি দিচ্ছে, কিন্তু তারা যেসব প্রশ্নে নীরব:-

বিশ্ববাজারে যখন দাম কমছে তখন এখানে বাড়ানো হলো কেন? গত করোনার সময় যখন তেলের দাম সর্বনিম্ন ছিল তখন সরকার দাম কমায় নি কেন?

কম দামের পণ্য বেশি দামে জনগণের কাছে বিক্রি করে যে লাভ করলো, এখন সেখান থেকে কিছু সাবসিডি দেওয়ার বেলায় অনীহা কেন?

অকটেন সহ যে উপকরণ দেশে উৎপাদিত হয়, পর্যাপ্ত মজুদ আছে। প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, তার দাম বাড়ানো হলো কেন? সরকার কি মজুদদারি বিজনেস শুরু করেছে? 

জ্বালানির দাম বাড়াতে কতোগুলো প্রসেসে এগুতে হয় বিইআরসিতে শুনানী করতে হয়- মতামত নিতে হয়। দাম বাড়ানোর যৌক্তিকতা বলতে হয়।  সেটা না করে সরাসরি দাম বাড়ানো কি আইনসিদ্ধ?

রিজার্ভ ধরে রাখার যুক্তি দেওয়া হচ্ছে। তাহলে বাংলাদেশ ব্যাংকের ৮১ মিলিয়ন ডলার চুরি নিয়ে কথা বললে সরকারের মুখ লাল হয়ে যায় কেন? তারা তদন্ত রিপোর্ট প্রকাশ করতে গাই গুই করে কেন?

সরকার সাধারণ মানুষকে সাশ্রয়ী হতে বললেও গত ১ মাসে মন্ত্রী, এমপিরা রাষ্ট্রের অর্থ সাশ্রয়ের একটা উদাহরণ কি দেখাতে পেরেছে? 

পানির দাম বাড়িয়ে ওয়াসার লোকসান কমানোর কথা বলা হচ্ছে আর প্রধানমন্ত্রীর নিকটাত্মীয় ওয়াসার এমডি বছরের পর পর একই পদে বসে ইচ্ছেমতো বেতন-ভাতা বাড়ালেও সরকার সে বিষয়ে নীরব কেন? গত কোরবানির ঈদে তিনি একাই ১০ লাখ টাকা বোনাস নিয়েছেন।

২০১৯ সালে কেবল এস আলম গ্রুপকে ৩ হাজার ১১৭ কোটি টাকা কর মওকুফ করা হয়েছে। এস আলম, ওরিয়ন-  সামিট গ্রুপকে গত এক দশকে কতো টাকা কর মওকুফ করা হয়েছে৷ বিদ্যুৎ খাত থেকে তাদের কতো টাকা দেওয়া হয়েছে তার হিসেব দিতে চায় না কেন?

শ্রীলঙ্কার পরিণতি ঠেকানোর কাজ কি শুধু জনগণের? ফেসবুক থেকে 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়