শিরোনাম
◈ গাজায় যুদ্ধবিরতি হলেও হিজবুল্লাহর বিরুদ্ধে হামলা বন্ধ হবে না:ইসরায়েল ◈ চার মাসের মধ্যেই প্রাথমিকে ১০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ ◈ পিলখানা হত্যাকাণ্ডের দিবসটির গুরুত্ব বাড়াতে সরকার কার্যকর উদ্যোগ নেবেন, আশা জি এম কাদেরের ◈ সরকার সংবাদপত্রের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করে না: আইনমন্ত্রী ◈ ফিলিস্তিনের বিপক্ষে অপতথ্য ছড়ানো প্রতিরোধে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম তৈরি করতে হবে: তথ্য প্রতিমন্ত্রী ◈ বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির তদন্ত প্রতিবেদন পেছাল ◈ গাজায় যুদ্ধ নয়, গণহত্যা চলছে ইসরায়েল: লুলা দা সিলভা ◈ গ্রামীণ টেলিকমসহ তার প্রতিষ্ঠানগুলোর লভ্যাংশ কাউকে দেয়া যায় না: ড. ইউনূস   ◈ মুখ খুলে মানুষ গণতন্ত্রের কথা বলতে পারছে না: ড. ইউনূস  ◈ স্বাস্থ্যসেবা বিকেন্দ্রীকরণ শুরু হয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত : ১৮ মার্চ, ২০২৩, ১২:১৬ দুপুর
আপডেট : ১৮ মার্চ, ২০২৩, ০৩:৫৩ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

ওমরা শেষে ঢাকায় ফেরার পর চিত্রনায়িকা মাহী গ্রেপ্তার

মাহিয়া মাহী

রাশিদুল ইসলাম, এ এইচ সবুজ : ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের একটি মামলায় আলোচিত চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহীকে ঢাকা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে তাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শনিবার (১৮ মার্চ) দুপুরে ওমরাহ পালন শেষে দেশে ফিরলে বিমানবন্দর থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গাজীপুরের ডিবি কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান জানান, গ্রেপ্তারের পর পুলিশ মাহিয়া মাহীকে গাজীপুর নিয়ে যাচ্ছে এবং সেখানে এক সাংবাদিক সম্মেলন বিস্তারিত জানানো হবে।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে পুলিশ গত শুক্রবার রাতে মাহিয়ার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে।  তার স্বামী রাকিব সরকার পলাতক। রাকিব সরকার গাজীপুরের ব্যবসায়ী ও আওয়ামী লীগ নেতা। রাকিব সরকারের গাড়ির শোরুমে হামলা ও ভাঙচুর করা হয়েছে বলে শুক্রবার (১৭ মার্চ) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অভিযোগ করেন তাঁর স্ত্রী চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। 

তবে স্থানীয় ইসমাইল হোসেন নামে এক ব্যক্তি দাবি করেছেন-জোরপূর্বক দখল করে তাঁর ও মামুন সরকারের জমিতে ‘সনিরাজ কার প্যালেস’ নামে শোরুম গড়েছেন রাকিব সরকার। ওই জমিতে কাজ করতে গেলে রাকিব সরকারের লোকজনই হামলা চালায়।

এরই মধ্যে চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি ও তাঁর স্বামী রাকিব সরকারের বিরুদ্ধে দুটি মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। শুক্রবার (১৭ মার্চ) রাতে গাজীপুরের বাসন থানায় মামলা দুটি দায়ের হয়।

কোটি টাকার জমি দখল ও জমিতে কাজ করতে গেলে বাধা প্রদান ও মারধরের অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেন স্থানীয় ইসমাইল হোসেন। এ মামলায় মাহি ও তাঁর স্বামী রাকিব সরকারসহ ২৮ জনকে আসামি করা হয়েছে। অপর মামলাটি দায়ের করেছে পুলিশ। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মিথ্যা ও বানোয়াট প্রচারণা চালিয়ে পুলিশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করার অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলাটি দায়ের হয়। এ মামলার বাদী বাসন থানার উপ পুলিশ পরিদর্শক (এসআই) রোকন মিয়া। এ মামলায় মাহি ও তাঁর স্বামীকে আসামি করা হয়েছে। 

গাজীপুর মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার দেলোয়ার হোসেন মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার দেলোয়ার হোসেন বলেন, ‘সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি ও তাঁর স্বামী আমাদের নিয়ে মিথ্যা ও বানোয়াট অভিযোগ করেছেন। তাঁরা পুলিশকে বিতর্কিত করার মিশনে নেমেছেন। অথচ মাহি বা তাঁর স্বামী জমিজমা সংক্রান্ত কোনো বিষয় নিয়ে আমাদের কাছে আসেননি। তাঁরা নিজেদের অপরাধ ঢাকতে পুলিশের ওপর চাপ সৃষ্টি করতে এ কাজ করেছেন।’ 

মামলা প্রসঙ্গে মাহি গনমাধ্যমকে জানিয়েছেন, এসব ক্ষমতাধরদের প্রধানমন্ত্রী ছাড়া কেউ শাস্তি দিতে পারবে না। আমাদের গ্রেপ্তার করতে পারে, কারুক। দ্রুত সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত জানাবো। আমাদের নামে দুই মামলা হয়েছে, এখনই পুলিশ আমাদের শোরুম দখলে নিয়েছে, কিন্তু কেন?

আরআই/এইচএ

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়