শিরোনাম

প্রকাশিত : ২০ মে, ২০২২, ০২:৩৭ দুপুর
আপডেট : ২০ মে, ২০২২, ০৩:১৩ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

ভূমি সংস্কার আইন- ২০২২’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন

৬০ বিঘার অতিরিক্ত জমি থাকলে বাজেয়াপ্ত

মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম

এম এম লিংকন: [২] মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, এখন থেকে ব্যক্তিগতভাবে ৬০ বিঘার বেশি জমির মালিক হওয়ার সুযোগ নেই। এর বেশি জমি হলে অতিরিক্ত জমি সরকার বাজেয়াপ্ত করে নিয়ে যাবে। বৃহস্পতিবার মন্ত্রিপরিষদের বৈঠক শেষে সচিবালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান।

[৩] এর আগে শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে ভূমি সংস্কার আইন-২০২২’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়।

[৪] সচিব বলেন, এ আইনে বলা হয়েছে যদি রপ্তানিমূলক কৃষিপণ্য বা অন্য কোনো প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্প হয় তবে সেক্ষেত্রে এই ৬০ বিঘা প্রযোজ্য হবে না। আর ২৫ বিঘা পর্যন্ত খাজনা মাফ। তবে জমি ২৫ বিঘার ওপরে থাকলে সব জমির জন্য ট্যাক্স দিতে হবে। সেক্ষেত্রে ২৫ এর উপরের টুকু না, বরং সবটুকুরওই ট্যাক্স দিতে হবে।

[৫] এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ধরেন কারো ২০০ বিঘা জমি ছিল তখন সে তাড়াতাড়ি ছেলেরে মিউটেশন করে দিছে, মেয়েকে মিউটেশন করে দিছে। সে নিজে ৬০ বিঘার নিচেই রাখছে। ... ৬০ বিঘার চেয়ে বেশি সিলিং রাখতে পারবে না।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়