শিরোনাম
◈ দুর্ঘটনায় রুবিনার মৃত্যু, শিক্ষকের সর্বোচ্চ শাস্তিতে সহায়তা করবে পুলিশ ◈ নয়াপল্টনের সমাবেশে নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে হবে সরকারকে: আমান ◈ চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে সয়াবিন, চাল ও চিনি  ◈ রাজশাহীতে বিএনপির গণসমাবেশ: পথে পথে তল্লাশি ◈ রাজনৈতিক দলগুলোই বিদেশিদের কথা বলার সুযোগ করে দিচ্ছে  ◈ আইপিএলে এবার সাকিবের ভিত্তিমূল্য কত? ◈ পরিবহন ধর্মঘটের কারণে রাজশাহীর সমাবেশে ট্রেনে আসছেন বিএনপির নেতাকর্মীরা ◈ পোশাক রপ্তানিতে আবারো ভিয়েতনামকে ছাড়িয়ে গেল বাংলাদেশ ◈ গত বছরের চেয়ে প্রবাসী আয় ১ বিলিয়ন ডলার কমতে পারে ◈ বিএনপির আগুন, লাঠি, দুর্নীতি ও ভোট চুরির বিরুদ্ধে খেলা হবে: কাদের

প্রকাশিত : ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ০৬:০৫ বিকাল
আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ০৬:২৪ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

চট্টগ্রাম নগরীতে ২৮২-এর মধ্যে ৭৫টি মন্ডপই ঝুঁকিপূর্ণ

অনুজ দেব, চট্টগ্রাম : জেলায় ব্যক্তিগত, ঘটপূজাসহ এবছর মোট ২,৩২৪টি পূজামন্ডপে এবার শারদীয় দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। মহানগরের প্রধান পূজা মন্ডপ জেএম সেন হল প্রাঙ্গণসহ এবার ১৬টি থানায় পূজা মন্ডপের সংখ্যা ২৮২টি।

এগুলোর মধ্যে এবার ৫০টি ঝুঁকিপূর্ণ এবং ২৫টিকে অতি ঝুঁকিপূর্ণ পূজামন্ডপ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। ১ অক্টোবর (শনিবার) ষষ্ঠী পূজার মধ্য দিয়ে শুরু হচ্ছে দুর্গাপূজার মূল আনুষ্ঠানিকতা। ৫ অক্টোবর (বুধবার) বিজয়া দশমীতে বিসর্জনের মাধ্যমে শেষ হবে পাঁচ দিনব্যাপী শারদীয় উৎসব।

আর এই উৎসবকে সামনে রেখে নিরাপত্তাসহ বিভিন্ন ধরনের প্রস্তুতি নিয়েছে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন ও পূজা উদযাপন কমিটি। করোনা সংক্রমণ সহনীয় পর্যায়ে থাকায় এবার দুর্গোৎসব জমজমাট হবে মনে করছেন বলে পূজার্থীরা। সাত্ত্বিকভাবে পূজা উদযাপনে মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদ এবার পূজা মন্ডপগুলোতে ডিজে অনুষ্ঠান ও হিন্দি গান না বাজানোসহ বেশকিছু কঠোর সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে।

চট্টগ্রাম মহানগর পুুলিশের পক্ষ থেকেও পূজাকে নির্বিঘœ করতে এবং অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা এড়াতে ৩২টি নির্দেশনা দিয়েছে। মহানগরসহ জেলার সব পূজা মন্ডপে অবয়ব ও রংতুলির কাজ শেষ হওয়ার পর মঞ্চ, প্যান্ডেল, লাইটিংয়ের কাজ সহ চলছে শেষদিকের প্রস্তুতি।

চট্টগ্রাম মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি লায়ন আশিষ কুমার ভট্টাচার্য আমাদেরসময়ডটকমকে জানান, শারদউৎসবকে প্রাণবন্ত, সুন্দর ও নিয়মশৃঙ্খলার মধ্যে সম্পন্ন করতে সবধরনের প্রস্তুতি চলছে। সাত্ত্বিকভাবে মায়ের আগমনী ও পূজার অনুষ্ঠানটি সম্পন্ন করবো।

মন্ডপে মন্ডপে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য ছাড়াও থাকবে নিজস্ব স্বেচ্ছাসেবক। চট্টগ্রাম মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক হিল্লোল সেন উজ্জ্বল জানান, সাত্ত্বিকভাবে পূজা উদযাপনের প্রস্তুতি চলছে। আমাদের স্পষ্ট ঘোষণা, মন্ডপে কোনো ধরনের ডিজে অনুষ্ঠান এবং মাইকে হিন্দি গান বাজানো চলবে না।

আমাদের নির্দেশনা ছাড়াও কেন্দ্রীয়ভাবেও ২১টি নির্দেশনা রয়েছে। প্রত্যেকটি পূজা মন্ডপের কাছে নির্দেশনা মেনে পুজা করার অনুরোধ করছি। চসিকের ২১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শৈবাল দাশ সুমন জানান, সাত্ত্বিকভাবে পূজা আয়োজনে এবার ব্যতিক্রমী কিছু পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। পূজা চলাকালীন মাইকে কোনো ধরনের হিন্দি গান চলবে না, শুধুমাত্র ভক্তিমূলক,ধর্মীয় ও আধুনিক গান বাজানো হবে। চল্লিশ-পঞ্চাশ বছর আগে যেসব আয়োজন হতো, সেসব আয়োজন নিয়েই আমরা সামনের দিকে এগিয়ে যেতে চাই।

আমরা ধুনোচি নাচ, গীতা পাঠ, উলুধ্বনি ও শঙ্খধ্বনি প্রতিযোগিতার আয়োজন করছি। দেড় ঘন্টার চন্ডী পাঠের আসর করবো, যেটা আমরা ছোটবেলায় মহালয়ার সময় শুনতাম। চট্টগ্রাম জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি শ্যামল কুমার পালিত জানান, নগর ও জেলায় মোট ২ হাজার ৩২৪টি প্রতিমা ও ঘটপূজা অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা যাতে নির্বিঘে পূজা উদযাপন করতে পারে সেজন্য সব ধরনের নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ। পূজা চলাকালীন মন্ডপে মন্ডপে দায়িত্ব পালন করবেন পুলিশ সদস্যরা।

এছাড়া থাকবে আনসারও। চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের পক্ষ থেকে প্রতিমা বিসর্জন পর্যন্ত ৩২টি নির্দেশনা প্রদান এবং সবাইকে এগুলো মেনে চলার অনুরোধ জানানো হয়েছে।

উল্লেখযোগ্য নির্দেশনার মধ্যে রয়েছে- পূজামন্ডপে পুরুষ ও নারীদের জন্য পৃথক প্রবেশ ও বের হওয়ার পথ রাখা, করোনা সংক্রমণ মোকাবিলায় মন্ডপসমূহের প্রবেশমুখে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা রাখা, মন্ডপের ভেতরে একসঙ্গে ২০ জনের অধিক লোক অবস্থান না করা, মন্ডপের প্রবেশমুখে ভিড় নিয়ন্ত্রণে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা, মন্ডপের আশপাশ এলাকায় সিসি ক্যামেরা স্থাপন এবং ভিডিও ফুটেজ সংরক্ষণ করা, মন্দির বা পূজামন্ডপে যথাযথ ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য বজায় রেখে অনুষ্ঠান কার্যক্রম পরিচালনা করা, আগামী ৫ অক্টোবর সন্ধ্যা ৬ টার মধ্যে প্রতিমা বিসর্জন সম্পন্ন করাসহ বিসর্জনের শোভাযাত্রায় যাতে অনাকাক্সিক্ষত লোক প্রবেশ করতে না পারে সে বিষয়ে সতর্ক থাকা। এছাড়া সাম্প্রদায়িক উসকানি ঠেকাতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকও নজরদারির আওতায় থাকবে বলে জানিয়েছে পুলিশ। সম্পাদনা : আল আমিন 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়