শিরোনাম
◈ ঘূর্ণিঝড়ে লণ্ডভণ্ড কিউবা, ২০ লাখ মানুষ বিদ্যুৎহীন ফ্লোরিডায় ◈ বিএনপি যতই আন্দোলন করুক তত্ত্বাবধায়ক আর ফিরবে না: আইনমন্ত্রী ◈ পুলিশের গুলিতে মানুষের মৃত্যু অনাকাঙ্খিত, নিশ্চয়ই সব ঘটনার তদন্ত হবে: বিদায়ী আইজিপি ◈ সুচি ও অর্থনৈতিক উপদেষ্টার ৩ বছর করে কারাদণ্ড ◈ র‌্যাবের ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার হবে না, সংস্কার আনলে বিবেচনা করবে যুক্তরাষ্ট্র: রাষ্ট্রদূত ◈ রোহিঙ্গাদের নিয়ে বিদ্বেষমূলক প্রচারণা, ফেসবুককে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে: অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল ◈ মার্কিন নাগরিকদের অবিলম্বে রাশিয়া ত্যাগের আহ্বান ◈ নাইকো দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানি ৮ নভেম্বর ◈ ডিম আমদানি নয়, মনিটরিং জোরদার করা হবে: কৃষিমন্ত্রী ◈ যুক্তরাষ্ট্র ক্রিকেট বোর্ডের সদস্য হলেন বাংলাদেশের নওশের প্রিন্স

প্রকাশিত : ১৫ আগস্ট, ২০২২, ০৪:৩৫ দুপুর
আপডেট : ১৫ আগস্ট, ২০২২, ০৪:৩৫ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

চা শ্রমিকদের মজুরি বৃদ্ধির প্রসঙ্গে আগামীকাল বৈঠক

চা শ্রমিকদের দাবি

স্বপন দেব: বাংলাদেশ চা শ্রমিক ইউনিয়ন কমিটির নেতাদের সঙ্গে মজুরি বৃদ্ধির প্রসঙ্গ নিয়ে মঙ্গলবার বৈঠকে বসবেন বাংলাদেশ শ্রম অধিদপ্তরের মহাপরিচালক খালেদ মামুন চৌধুরী। এ জন্য মঙ্গলবার তিনি মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে যাবেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছে বিভাগীয় শ্রম দপ্তর শ্রীমঙ্গলের উপপরিচালক মোহাম্মদ নাহিদুর রহমান।

তিনি বলেন, মহাপরিচালক শ্রীমঙ্গলে এসে প্রথমে বাংলাদেশ চা শ্রমিক ইউনিয়নের নেতাদের সঙ্গে বসবেন। পরে তাদের দাবি-দাওয়া নিয়ে বাগান মালিকদের সঙ্গে কথা বলবেন। 

বর্তমানে ধর্মঘটের কারণে দুই পক্ষের মধ্যে একটা দূরত্ব তৈরি হওয়ায় দুই পক্ষকে নিয়ে একসঙ্গে বসে সমস্যার সমাধান কঠিন হবে। ইতিমধ্যেই উভয় পক্ষকে মহাপরিচালকের সঙ্গে বসার জন্য বলা হয়েছে। তারা আসবেন।

বাংলাদেশ চা শ্রমিক ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক ভারপ্রাপ্ত নিপেন পাল বলেন, যেহেতু মহাপরিচালক চলমান আন্দোলনের একটি সমাধান করতে চাচ্ছেন, আমরাও আলোচনায় রাজি আছি। তবে কর্মসূচি অনুযায়ী আমাদের যৌক্তিক আন্দোলন চলবে। আমরা ১০ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল নিয়ে সেখানে যাব।

নিপেন পাল আরও বলেন, আমাদের শ্রমিকেরা কী কঠিন অবস্থায় আছে, সেটি সরকার ও মালিকপক্ষকে অবশ্যই দেখতে হবে। চা বাগানের শ্রমিকদের খাদ্যের অভাব, ভালো চিকিৎসার অভাব, ছেলেমেয়েদের পড়াশোনার অভাব। ঘরে ঘরে শ্রমিকদের কষ্ট। আমরা এর একটি ভালো সমাধান চাই। ২০২২ সালে ডিজিটাল বাংলাদেশে এসে আমরা দাসত্বের জীবন কাটাতে চাই না। আমাদের দাবি নিয়ে সুন্দর সমাধান পেলে আমরা আন্দোলন প্রত্যাহার করব। কিন্তু দাবি না মানা হলে কঠোর আন্দোলনে নামব। সম্পাদনা: মাজহারুল ইসলাম

  • সর্বশেষ