শিরোনাম
◈ প্রাইভেটকারের ওপর গার্ডার: ক্রেনের চালক ও ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা ◈ গার্ডার চাপায় নিহতদের ময়নাতদন্ত হবে সোহরাওয়ার্দীর মর্গে ◈ উত্তরায় দুর্ঘটনা: শিশু জাকারিয়া জীবিত ছিল আধাঘণ্টা ◈ পুলিশের উদ্দেশ্যই ছিল ছাত্রলীগের ছেলেদের মারবে: এমপি শম্ভু ◈ রাজধানীতে ক্রেন থেকে রড পড়ে ৫ পথচারী আহত ◈ চকবাজার ও উত্তরার ঘটনায় শোক জানিয়ে তদন্তের দাবি ফখরুলের ◈ মানবাধিকারকর্মীদের কথা শুনলেন জাতিসংঘের মিশেল ব্যাচেলেট ◈ উত্তরায় ক্রেন দুর্ঘটনা: বেঁচে রইলেন শুধু নবদম্পতি ◈ খায়রুনকে লাথি মেরে সেই রাতে বাইরে যান স্বামী ◈ উত্তরায় প্রাইভেট কারের উপর ফ্লাইওভারের গার্ডার, নিহত ৫ (ভিডিও)

প্রকাশিত : ০৬ আগস্ট, ২০২২, ০২:২৪ রাত
আপডেট : ০৬ আগস্ট, ২০২২, ১২:৫৩ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

মধ্যরাতে কার্যকর হলো তেলের বাড়তি দাম

মিটারে নতুন দাম

ডেস্ক রিপোর্ট: পরিশোধিত এবং আমদানি/ক্রয় করা ডিজেল, কেরোসিন, অকটেন ও পেট্রোলের পুনর্নির্ধারিত দাম কার্যকর হয়েছে। শুক্রবার (৫ আগস্ট) রাত ১২টায় কার্যকর হয় বাড়তি এ দাম। এসময় থেকে রাজধানীর ফিলিং স্টেশনগুলোতে নতুন দামি জ্বালানি তেল বিক্রি হতে দেখা গেছে। ঢাকা পোস্ট

রাজধানীর আসাদ গেটের মেসার্স তালুকদার ফিলিং স্টেশনে রাত ১২টায় নতুন দামে জ্বালানি বিক্রি হতে দেখা গেছে। সেখানে তেল নিতে আসা বাইকরা নোবেল বলেন, প্রতিটি ফিলিং স্টেশনে অন্তত সাত দিনের জ্বালানি তেল মজুত থাকে। কিন্তু তারা রাত ১২টা পার হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই সরকারের নির্ধারিত দামে বিক্রি শুরু করে দিয়েছে।

শুক্রবার রাতে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ডিজেল, কেরোসিন, অকটেন ও পেট্রোলের মূল্য ভোক্তা পর্যায়ে পুনর্নির্ধারণ করা হয়েছে। রাত ১২টার পর থেকে ডিপোর ৪০ কিলোমিটারের ভেতর ভোক্তা পর্যায়ে খুচরা মূল্য লিটারপ্রতি ডিজেল ও কেরোসিন ১১৪ টাকা, লিটারপ্রতি অকটেন ১৩৫ টাকা ও লিটারপ্রতি পেট্রোল ১৩০ টাকা হবে।

এতদিন কেরোসিন ও ডিজেল প্রতি লিটার ৮০ টাকা, অকটেন ৮৯ টাকা প্রতি লিটার ও পেট্রোল ৮৬ টাকা প্রতি লিটারে বিক্রি হচ্ছিল।

এদিকে জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির খবর পাওয়ার পর থেকে রাজধানীর বিভিন্ন জায়গায় পেট্রোল পাম্প বন্ধ করে রাখে কর্তৃপক্ষ। অন্যদিকে বাইক চালকরা ফিলিং স্টেশনে ভিড় করেছেন। তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, তেলের মূল্যবৃদ্ধির খবরে কর্তৃপক্ষ পাম্প বন্ধ করেছে যাতে করে ১২টার পর থেকে অতিরিক্ত দামে তেল বিক্রি করতে পারে। তারা মূলত সিন্ডিকেট তৈরির ব্যবস্থা করেছে। তবে স্টেশন মালিকরা বলছেন ভিন্ন কথা। তারা বলছেন, আনলোড করার জন্যই স্টেশন বন্ধ রাখা হয়েছে।

  • সর্বশেষ