শিরোনাম

প্রকাশিত : ২৫ জানুয়ারী, ২০২৩, ০৩:২৮ রাত
আপডেট : ২৫ জানুয়ারী, ২০২৩, ০৫:১২ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

এবার গোপন নথি পাওয়া গেল মাইক পেন্সের বাড়িতে

ছবি: সংগৃহীত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের বাড়িতে এবার পাওয়া গেছে রাষ্ট্রের গোপন নথি। গেল সপ্তাহে তার ইন্ডিয়ানার বাসা থেকে নথিগুলো উদ্ধার করা হয়। মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) বিবিসির প্রতিবেদনে উঠে আসে এ তথ্য।

সংবাদমাধ্যমের খবরে জানা যায়, ইতোমধ্যে নথিগুলো এফবিআই এর কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। বিশেষ পরামর্শদাতারা রাষ্ট্রপতি জো বাইডেন এবং প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্পের শ্রেণীবদ্ধ নথিগুলো নিয়ে কাজ শুরু করেছেন এবং পরিচালনার দিকে নজর দিচ্ছেন। ইতোমধ্যে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প গোপন নথি রাখার অভিযোগে একটি ফৌজদারি তদন্তের মুখোমুখি হয়েছেন।

জানা যায়, পেন্সের প্রতিনিধিরা নথিগুলো সংগ্রহের জন্য ন্যাশনাল আর্কাইভসকে একটি চিঠি দেয়। এরপর এফবিআই নথিগুলো সংগ্রহের জন্য সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্টের বাড়িতে যায়।

এদিকে ভাইস প্রেসিডেন্ট থাকাকালীন ব্যক্তিগত অফিস ও বাসভবন থেকে একের পর এক গোপন নথি উদ্ধারে চরম বেকায়দায় পড়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। পড়েছেন বিতর্কের মুখেও। নথি উদ্ধারের ঘটনায় সমালোচনায় মুখর হয়েছেন বিরোধী দল রিপাবলিকান পার্টির নেতারা। ছাড় দিচ্ছেন না বাইডেনের নিজ দল ডেমোক্রেটিক পার্টির নেতারাও।

গত বছরের নভেম্বর থেকে চলতি জানুয়ারি পর্যন্ত মোট তিন দফায় জো বাইডেনের বাড়ি ও ব্যক্তিগত কার্যালয় থেকে গোপন নথি উদ্ধার করে মার্কিন বিচার বিভাগ। প্রথম নথি উদ্ধারের ঘটনা ঘটে ওয়াশিংটনে বাইডেনের সাবেক ব্যক্তিগত কার্যালয় থেকে। এরপর ডেলাওয়ার অঙ্গরাজ্যের বাড়িতে পাওয়া যায় নথির সন্ধান। সবশেষ গত শনিবার (২১ জানুয়ারি) একই বাড়ি থেকে আবার গোপন নথি উদ্ধার করা হয়।


যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা প্রশাসনে ভাইস প্রেসিডেন্টের দায়িত্বে ছিলেন বাইডেন। উদ্ধার হওয়া গোপন নথিগুলো সেই সময়ের। যুক্তরাষ্ট্রের আইন অনুযায়ী, মেয়াদ শেষ হলে কেন্দ্রীয় সরকারে দায়িত্বে থাকা ব্যক্তিদের স্বেচ্ছায় দাপ্তরিক নথি ও গোপন দলিল জমা দিতে হয়। তবে ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে বাইডেনের মেয়াদ শেষের পরও এসব নথি জমা দেয়া হয়নি।

এর আগে ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মার-এ-লাগো রিসোর্ট থেকে সরকারি গোপন নথি উদ্ধার করা হয়েছিল। এতে কড়া সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন তিনিও।

এমএএস

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়