শিরোনাম

প্রকাশিত : ২৬ মে, ২০২২, ০৩:৪৩ দুপুর
আপডেট : ২৬ মে, ২০২২, ০৪:৫৭ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

শাহজালালে বিমানবন্দরে ৮ কেজি স্বর্ণ জব্দ

স্বর্ণেরবার

ডেস্ক রিপোর্ট: হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইট ক্যাটারিং সেন্টার (বিএফসিসি) থেকে প্রায় ৮ কেজি ওজনের ৭০ পিস স্বর্ণেরবার জব্দ করেছে ঢাকা কাস্টমস হাউসের প্রিভেন্টিভ টিম। এসময় স্বর্ণেরবার বহন করায় এক বিমান কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। 

গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তির নাম মোহাম্মদ আব্দুল আজিজ আকন্দ। তিনি বিএসসিসির কিচেনে প্যান্ট্রিম্যান হিসেবে কর্মরত বলে জানা গেছে। উদ্ধারকৃত এ সব স্বর্ণের বাজার মূল্য প্রায় সাড়ে ৬ কোটি টাকা।

বৃহস্পতিবার (২৬ মে) ঢাকা কাস্টম হাউসের প্রিভেনটিভ টিমের উপ-কমিশনার মো সানোয়ারুল কবির স্বর্ণ আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বুধবার রাত ৮টার দিকে বিমানবন্দরের ক্যাটারিং সেন্টারের গেটের সামনের থেকে আব্দুল আজিজকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার দেহ তল্লাশি করে কালো স্কসটেপ দিয়ে মোড়ানো ৪টি স্বর্ণের বারের বান্ডিল উদ্ধার করা হয়। যার মধ্যে প্রতিটি ১১৬ গ্রাম ওজনের মোট ৭০ পিস বার পাওয়া যায়।

সানোয়ারুল কবির জানান, গোপন তথ্যের ভিত্তিতে গতকাল দুপুর ১ টার দিকে কাস্টম কর্মকর্তারা বিমানের ক্যাটারিং সেন্টারে প্রবেশ করার চেষ্টা করলে বাঁধার মুখে পড়তে হয়। দু’টি গেটের একটি গেট দিয়ে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি কাস্টমস কর্মকর্তাদের। এ সময় বিমানের ক্যাটারিং সেন্টার তাদের সাথে নানা ধরনের টালবাহানা শুরু করে। পরে জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থা এনএসআই-এর মাধ্যমে বিমানের ক্যাটারিং সেন্টারে প্রবেশ করে কাস্টমস কর্মকর্তারা। তখন ক্যাটারিং সেন্টার থেকে জানানো হয়, আব্দুল আজিজ দুপুর ১টা ৪৯ মিনিটে অফিস থেকে বেরিয়ে গেছেন। এখন তিনি অফিসে নেই।


ডিসি সানোয়ারুল কবির আরও জানান, এর পর দুপুর থেকে রাত পৌনে ৮টা পর্যন্ত বিমানের ক্যাটারিং অফিসের গেটের সামনে কাস্টমসের দু’জন ব্যক্তি নজরদারিতে থাকেন। পরে রাত ৮টার দিকে স্বর্ণ চোরাচালানকারি আব্দুল আজিজ বিমানের ক্যাটারিং অফিসের গেটের সামনে আসেন। এ সময় এনএসআই-এর সহযোগিতায় কাস্টমস হাউজের প্রিভেনটিভ টীমের কর্মকর্তারা মোহাম্মদ আব্দুল আজিজ আকন্দকে আটক করেন। পরে তার শরীরে তল্লাশি করে কালো স্কসটেপ দিয়ে মোড়ানো ৫টি স্বর্ণের বারের বান্ডিল উদ্ধার করা হয়।

তার বিরুদ্ধে কাস্টমস অ্যাক্ট ও ফৌজদারি আইনে বিমানবন্দর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। সেই সঙ্গে আটক হওয়া আব্দুল আজিজকে ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে বিমানবন্দর থানা-পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয় বলেও জানান তিনি।

ডিএমপির উত্তরা বিভাগের বিমানবন্দর জোনের উপ-পুলিশ কমিশনার তাপস কুমার দাস বলেন, এ ঘটনায় আটক আজিজকে বৃহস্পতিবার সকালে ১০ দিনের পুলিশ রিমান্ডের আবেদন জানিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে। সূত্র: ইত্তেফাক

  • সর্বশেষ