শিরোনাম

প্রকাশিত : ০৫ জুলাই, ২০২২, ০৬:২১ বিকাল
আপডেট : ০৫ জুলাই, ২০২২, ০৬:২১ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

পাবনায় গৃহবধুকে হত্যার অভিযোগ : স্বামী আটক

পাবনায় গৃহবধুকে হত্যা

আবুল কালাম : পারিবারিক কলহের জেরে পাবনার বেড়া উপজেলার আমিনপুরে ছাবিনা খাতুন (৩২) নামে এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে। ঘটনার পর সন্দেহভাজন অভিযুক্ত স্বামী শিপন শেখ (৩৮) কে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (৫ জুলাই) সকালে আমিনপুর থানার রুপপুর ইউনিয়নের দয়রামপুর গ্রামের একটি ডোবা থেকে গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। 

নিহত ছাবিনা একই ইউনিয়নের পায়কান্দি খানমরিচ এলাকার মৃত নেওয়াজ মোল্লার মেয়ে। আর আটককৃত শিপন পার্শ্ববর্তী হাটখালি ইউনিয়নের মৃত আকু শেখের ছেলে।

পরিবার ও স্থানীয়দের দেয়া তথ্যে জানা গেছে, নিহত গৃহবধু ছাবিনা খাতুন তিন সন্তানের জননী। বছর দশেক আগে তাদের বিয়ে হয়। সোমবার রাতে থেকে গৃহবধূর কোন খোঁজ পাচ্ছিলেননা পরিবারের সদস্যরা। মঙ্গলবার সকালে বাড়ির পাশে ডোবায় তার মরদেহ ভাসতে দেখে থানায় খবর দেন স্থানীয়রা। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। তবে এখনো হত্যাকান্ডের মূল রহস্য উদঘাটন করতে পারেনি পুলিশ।

আমিনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রওশন আলী বলেন, প্রাথমিক তদন্তে গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যার পর পেটে চাকু ঢুকিয়ে দেয়া হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ বিষয়ে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। এই ঘটনায় সন্দেহভাজন অভিযুক্ত হিসেবে তার স্বামীকে বাড়ি থেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। গৃহবধুর মৃত্যুর কারণ নিয়ে আমরা তদন্ত করছি। আশা করছি খুব দ্রতই প্রকৃত ঘটনা বের হয়ে আসবে।

এদিকে স্থানীয় বাসিন্দা ও পরিবারের অভিযোগ, নিহত ছাবিনার স্বামী ভ্যানচালক শিপন একজন নিয়মিত জুয়ারু। সম্প্রতি বাড়ির পোষা একটি কোরবানীর পশু বিক্রি করা হয়েছে। পশু বিক্রির টাকা ছিল গৃহবধূ ছাবিনার কাছে। সেই টাকা নেয়ার জন্য নিজ স্ত্রীকে শিপন হত্যা করতে পারে।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়