শিরোনাম
◈ ডেঙ্গুতে গত ২৪ ঘন্টায় ১৪ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ২৮৬৫  ◈ যারা নির্বাচনকে বাধা ও প্রশ্নবিদ্ধ করবে ভিসানীতিতে ক্ষতিটা তাদেরই: ওবায়দুল কাদের  ◈ ভিসানীতি সরকারের ১৫ বছরের অপকর্মের ফসল: মির্জা ফখরুল  ◈ বিএনপি আসলেই নির্বাচন চায় কি না, প্রশ্ন প্রধানমন্ত্রীর ◈ খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসা নিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আবেদন লাগবে: আইনমন্ত্রী ◈ ভিসা নিষেধাজ্ঞায় বড় কোনো প্রভাব পড়বে না: বিশেষজ্ঞ মত ◈ স্যাংশনের ভালো দিক, বিএনপি-জামায়াত জ্বালাও পোড়াও করতে পারবে না: প্রধানমন্ত্রী ◈ উই আর ভেরি হ্যাপি: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ◈ নিষেধাজ্ঞা পাওয়ার ব্যক্তিদের নাম প্রকাশ করবে না যুক্তরাষ্ট্র: ডোনাল্ড লু ◈ মানবিক কারণে খালেদা জিয়াকে দ্রুত বিদেশে পাঠানোর দাবি মির্জা ফখরুলের

প্রকাশিত : ২৮ মার্চ, ২০২৩, ০৭:৩৬ বিকাল
আপডেট : ২৯ মার্চ, ২০২৩, ১২:৪৮ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

পোশাক কারখানায় ঈদের ছুটি ২১ এপ্রিল, শ্রমিকদের মানতে হবে ৬ নির্দেশনা

মনজুর এ আজিজ: মালবোঝাই করা ট্রাকে যাতায়াত না করাসহ শমিকদের ৬ নির্দেশনা দিয়ে এ বছর ২১ এপ্রিল (শুক্রবার) থেকে পবিত্র ঈদুল ফিতরের ছুটি শুরু হবে বলে জানিয়েছে তৈরি পোশাক মালিক ও রপ্তানিকারক সমিতি (বিজিএমইএ)। আগামী ২২ এপ্রিল (শনিবার) ঈদুল ফিতর অনুষ্ঠিত হতে পারে বলে সম্ভাব্য তারিখ ধরে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিজিএমইএ। তবে এ ছুটি চাঁদ দেখার ওপর নির্ভর করবে, পাশাপাশি স্ব-স্ব কারখানা নিজস্ব শিপমেন্ট, কার্যাদেশ প্রোডাকশনের সঙ্গে সমন্বয় করে যদি সুযোগ থাকে ঈদের দু-তিন দিন আগে শ্রমিকদের ছুটি দেওয়ার অনুরোধ করেছে সংগঠনটি। 

সোমবার সদস্যভুক্ত কারখানাদের এ নির্দেশনা দেয় পোশাক খাতের এ সংগঠনটি। একইসঙ্গে রপ্তানিমুখী তৈরি পোশাকশিল্পে নিয়োজিত শ্রমিকদের নিরাপদে গ্রামের বাড়ি যাওয়া-আসা নিয়ে ছয় দিকনির্দেশনা দিয়েছি পোশাক মালিকদের সবচেয়ে বড় সংগঠন বিজিএমইএ। সংগঠনটি সভাপতি ফারুক হাসান স্বাক্ষরিত এক চিটিতে সদস্যভুক্ত কারখানা মালিক বরাবর পাঠানো হয়েছে।

শ্রমিকদের জন্য ৬ নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ঈদের আগে শেষ কার্যদিবসে শ্রমিকদের ছুটির প্রাক্কালে মালবোঝাই করা ট্রাকে যাতায়াত না করা, তাড়াহুড়ো না করা, রাস্তা যান চলাচল স্বাভাবিক রেখে ফুটপাত দিয়ে হাটা, সাধারণ মানুষের যাতায়াতে বিঘ্ন না করা, অপরিচিত লোকদের দেওয়া খাবার না খাওয়া। 

কারখানা মালিকদের প্রতি বিজিএমইএ’র চিঠিতে বলা হয়, ঈদের ছুটিতে সড়ক, রেল এবং লঞ্চযাত্রায় একই দিন অতিরিক্ত শ্রমিকের চাপ কমানোর লক্ষ্যে সরকারের বিভিন্ন দপ্তর থেকে ধাপে ধাপে শ্রমিকদের ছুটি দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেছেন। নিজ নিজ কারখানা নিজস্ব শিপমেন্ট, কার্যাদেশ ও প্রোডাকশনের সঙ্গে সমন্বয় করে যদি সুযোগ থাকে ঈদের দু-তিন দিন আগে শ্রমিকদের ছুটি দিতে পারবেন। কারখানা কর্তৃপক্ষ যদি মনে করেন তবে রমজান মাসে বিভিন্ন সরকারি বা সাপ্তাহিক ছুটির দিনে শ্রমিকদের সঙ্গে আলোচনা করে জেনারেল ডিউটি করে এসব ছুটি সমন্বয় করতে পারবে। 

চিঠিতে আরও বলা হয়, শেষ কর্মদিবসে শ্রমিকদের নিরাপদে গ্রামের উদ্দেশে যাত্রা করার জন্য প্রয়োজনে কারখানা কর্তৃপক্ষ ৮ থেকে ১০ জনের টিম গঠন করে স্থানীয় ট্রাফিক ডিপার্টমেন্টের সহযোগিতা নিতে পারবেন। কোনো পক্ষ যাতে শ্রমিক অসন্তুষ্ট হওয়ার কোনো ঘটনা ঘটানোর চেষ্টা করতে না পারে সেই দৃষ্টি রাখতে হবে। পাশাপাশি কারও প্ররোচনায় শ্রম অসন্তোষ সংঘটিত হতে পারে, এ ধরনের কোনো সিদ্ধান্ত জানতে পারলে প্রয়োজনে স্থানীয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, কলকারখানা অধিদপ্তর অথবা বিজিএমইএ-এর সঙ্গে আলোচনা করার অনুরোধ জানানো হয়েছে।  

এমএ/এসবি২

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়