শিরোনাম
◈ রাজশাহীতে ১ ডিসেম্বর থেকে পরিবহন ধর্মঘটের ডাক ◈ সরকার যেভাবে দেশ চালাচ্ছে তাতে হিটলার থাকলে লজ্জা পেতো: মান্না  ◈ বেতন নেবেন না মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী আনোয়ার ইব্রাহিম ◈ ১০ ডিসেম্বর নয়াপল্টনেই সমাবেশ হবে: মির্জা ফখরুল ◈ মহিলা লীগের সভাপতি চুমকি, সম্পাদক শিলা ◈ নয়াপল্টনে ‘আসল বিএনপি’র মিছিলে বিএনপির ধাওয়া ◈ নির্বাচনের আগে সংলাপের সম্ভাবনা নাকচ করলেন প্রধানমন্ত্রী ◈ সময় হলে আমরাও বিদেশিদের বিরুদ্ধে অ্যাকশনে যাব: মোমেন ◈ শেখ হাসিনার ‘ম্যাজিক লিডারশিপে’ বদলে গেছে চট্টগ্রাম: কাদের ◈ সরকার যেখানে ভালো মনে করে সেখানেই সমাবেশের অনুমতি দিচ্ছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত : ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ০৪:০৫ দুপুর
আপডেট : ০১ অক্টোবর, ২০২২, ০৩:৩৮ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

কমেছে ইলিশ, বেড়েছে ডালের দাম 

ইলিশ

শাহীন খন্দকার: ইলিশের ভরা মৌসুম। তাই আমদানির সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বিক্রিও বেড়েছে। আগামী সপ্তাহের পর থেকে সব ধরনের ইলিশ মাছ ধরা ও বিক্রি বন্ধ থাকবে। তাই বাজারে ইলিশের দাম কমতে শুরু করেছে। ইলিশের আকারভেদে ২০০ থেকে সাড়ে ৩০০ গ্রাম ওজনের কেজি ৩০০-৩৭০ টাকা,  আর ৫০০ গ্রামের অধিক ওজনের কেজি ৬৫০ টাকা, ৭০০-৮০০ গ্রাম কেজিতে ৮০০ টাকা, আটশ থেকে এককেজির ৯-১০০০ টাকা দামে বিক্রি হচ্ছে।

এছাড়া অন্যান্য মাছের দাম বেড়েছে। আমদানি কমে যাওয়া ও ইলিশের বাড়তি চাহিদায় এসব মাছের দাম বেশি বলে জানিয়েছেন কারওয়ান বাজারের মাছ বিক্রেতারা। নিত্যপণ্যের ঊর্ধ্বগতিতে এ সপ্তাহেও স্বস্তির খরব নেই ভোক্তাদের জন্য। রুই, কাতলাসহ সব মাছের দাম কেজিতে ৫০ টাকার মতো বেড়েছে। 

ক্রেতারা জানিয়েছে, দেশে জ্বালানি তেল আর ডলারের দাম বৃদ্ধির নামে লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়েছে নিত্যপণ্যের দাম। সাইফুদ্দিন মানিক বলেন, অল্প কয়েক দিনের ব্যবধানে অস্বাভাবিক দরবৃদ্ধি হয়েছে বেশ কিছু নিত্যপণ্যের। সেগুলোর দাম এখন আর কমার কোনো লক্ষণ নেই। যে কারণে বাজারে সাধারণ ক্রেতাদের অস্বস্তি কাটছে না।

এদিকে কোনো কারণ ছাড়াই সব ধরনের চাল বাড়তি দামে বিক্রি হচ্ছে। ক্রেতারা জানিয়েছেন, দাম বেঁধে দেওয়ার ঘোষণার পরও ওই দামে বিক্রি হচ্ছে না চিনি। আগের বাড়তি দামের পণ্য শেষ না হওয়ার কারণে ডিলাররা দাম কম রাখছে না বলে জানিয়েছেন বিক্রেতারা। গত এক সপ্তাহের  ব্যবধানে বেড়েছে আটার দাম। প্রতি কেজি খোলা আটা কেজিতে পাঁচ টাকা বেড়ে ৫৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। প্যাকেটজাত আটা আগের দামেই বিক্রি হচ্ছে। বাড়তি দামেই মাছ-মাংস-ডিমও বিক্রি হচ্ছে।

উল্লেখ্য চালের দামের ঊর্ধ্বগতি রোধে  বেসরকারি পর্যায়ে আরও ১ লাখ টন সেদ্ধ ও আতপ চাল আমদানির অনুমতি পাচ্ছে ৪৫ প্রতিষ্ঠান। বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিবের কাছে এ নিয়ে চিঠি পাঠিয়েছে খাদ্য মন্ত্রণালয়। তাতে প্রতিষ্ঠানগুলোর অনুকূলে আমদানির অনুমতি দেয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে। আমদানি করা চালের মধ্যে নন-বাসমতি সেদ্ধ ৮১ হাজার টন এবং আতপ ১৯ হাজার টন। চালে সর্বোচ্চ ৫ শতাংশ ভাঙা দানা থাকতে পারবে। এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এদিকে হঠাৎ করে চায়না আদার দাম বেড়েছে কেজিতে ২০ টাকা। এমন অবস্থায় ক্রেতারা বলছেন প্রতিনিয়ত পণ্যের দাম বাড়তি থাকায় কম পরিমাণে কিনতে বাধ্য হচ্ছেন তারা। তবে স্বস্তি ফিরে এসেছে সবজির বাজারে।  বাজারে শীতের সবজির আমদানি বেড়াই কমতেও শুরু করেছে দাম। সব সবজিতে দাম কমেছে কেজিতে দশ থেকে ২০ টাকা।

বাজারে এক ডজন ডিম এক শ’ ৪০ টাকায় বিক্রি হলেও হালি প্রতি বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকায়। ব্রয়লার মুরগির দাম কেজিতে পাঁচ টাকা কমে বিক্রি হচ্ছে ১৬৫ টাকায়। ডাব্লিও ইউ

  • সর্বশেষ