শিরোনাম

প্রকাশিত : ০১ অক্টোবর, ২০২২, ০৩:২৮ দুপুর
আপডেট : ০১ অক্টোবর, ২০২২, ০৩:২৮ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

ডোবায় এক টুকরো আর ডাঙ্গায় মিললো আরো এক টুকরো

বিল্লাল হোসেন, কালীগঞ্জ (গাজীপুর) : কালীগঞ্জে অজ্ঞাত এক ব্যক্তির মরদেহ কিছু তিন অংশ (দুই হাত ও কোমড় থেকে উরু) উদ্ধার করেছে কালীগঞ্জ থানার উলুখোলা ফাঁড়ি পুলিশ। শনিবার (০১ অক্টোবর) সকালে উপজেলার নাগরী ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য মানিক মিয়ার ভাড়া বাড়ির সামনে কোমড় থেকে উরু ও দুটি বিচ্ছিন্ন হাতসহ মরদেহের তিনটি অংশ উদ্ধার করে পুলিশ।

কালীগঞ্জ থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মো. সোহেল রানা বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, নিহতের নাম পরিচয় এখনো পাওয়া যায়নি। ঘটনাস্থল পুলিশ—র‌্যাব পরিদর্শন করেছে। পাশাপাশি নাম পরিচয় শনাক্তে পুলিশ ব্যুারো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) কাজ করছে।

তিনি আরো বলেন, মরদেহের বাকী অংশ উদ্ধারের চেষ্টা অব্যাহত আছে। না পেলে ডিএনএ পরীক্ষার মাধ্যমে পরিচয় সনাক্ত করা হবে বলেও জানান পুলিশের ওই কর্মকর্তা। নাগরী ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. মুজিবুর রহমন বলেন, সাবেক ইউপি সদস্যের ভাড়া বাড়ির সামনে থেকে অজ্ঞাত ওই ব্যক্তির দেহের কিছু অংশ উদ্ধার করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, ২৮ সেপ্টেম্বর থেকে ইউনিয়নের ভাসানিয়া গ্রামের অমূল বানার্ট গোসালের ছেলে সবুজ বানার্ট গোসাল (৩০) নিখোজ রয়েছে। তিনি পূর্বাচল এপারেল পোশাক কারখানায় পোশাক শ্রমিকের কাজ করতো। এ ব্যাপারে বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) কালীগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (নং ১৩৭৪) করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

তবে পরিবার ও স্বজনদের দাবি আংশিক পাওয়া মরদেহটি ওই নিখোজ যুবক সবুজেরই। স্থানীয়রা জানান, ওই এলাকায় অপরিচিত কিছু লোক আশপাশে ভাড়া বাসা নিয়ে বসবাস করেন।

তবে এদের মধ্যে কোন সিরিয়াল কিলার থাকতে পারে। তাদের ধারণা যেভাবে লোকটিকে টুকরা করা হয়েছে এটা উন্মুক্তস্থানে নয়, বরং কোনো রুমের মধ্যে কাটা হতে পারে। কারণ এমন কাজ খোলা জয়গায় অসম্ভব।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়