শিরোনাম

প্রকাশিত : ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ০৫:৫৭ বিকাল
আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২, ০৫:৫৭ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

শিক্ষকের অপকর্মে এলাকাজুড়ে পোস্টরিং

আবু হাসাদ, রাজশাহী : পুঠিয়ায় মেহেদী হাসান নামের একজন প্রাইভেট শিক্ষক কৌশলে একাধিক ছাত্রীর সাথে অনৈতিক সম্পর্কের অভিযোগ উঠেছে। তার এ সকল কর্মকাণ্ডের প্রতিবাদে এলাকার লোকজন ওই শিক্ষকের ছবিসহ বিভিন্ন এলাকায় পোস্টার লাগিয়েছেন।

বিষয়টি নিয়ে এলাকাজুড়ে চরম উত্তেজনা ও সমালোচনা শুরু হয়েছে।মেহেদী হাসান উপজেলার বিড়ালদহ গ্রামের হবি মণ্ডলের ছেলে।

রোববার দিবাগত রাতে তার ছবিসহ তৈরিকৃত পোস্টার উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজার এলাকায় লাগানো হয়। নাজমুল হুদা নামের একজন শিক্ষার্থীর অভিভাবক বলেন, মেহেদী হাসান কৌশলে বিভিন্ন ছাত্রীদের সাথে অনৈতিক সম্পর্ক করছে।

মানহানী ভয়ে কোনো ছাত্রী বা তার পরিবার প্রতিবাদ করেন না। সে সুযোগে অভিযুক্ত আরো ব্যাপরোয়া হয়ে উঠেছে। তিনি বলেন, সম্প্রতি ওই শিক্ষক একজন ছাত্রী নিয়ে উধাও হয়ে যায়।

এরপর এক সপ্তাহ পর আবার বাড়ি ফিরে আসে। ওই ছাত্রীর পরিবারটি গ্রামে মানসম্মান হানীর আশঙ্কায় কোথাও কোনো অভিযোগ করেননি। নাম প্রকাশ না করা শর্তে বিড়ালদহ কলেজের এক ছাত্রী বলেন, তিনি চরিত্রহীন ব্যক্তি। তার কাছে প্রাইভেট পড়তে গেলে নানা প্রলোভনে অনৈতিক সম্পর্ক করার চেষ্টা করেন।

তার ফাঁদে যারা পরেছে তাদের সকলের সর্বনাশ করেছে। আর এ কারণে ভুক্তভোগী পরিবারের লোকজনরা প্রতিবাদ স্বরুপ ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে পোস্টার লাগিয়েছেন। প্রাইভেট শিক্ষক মেহেদী হাসান অভিযোগের বিষয়গুলো অস্বীকার করে বলেন, আমার কাছে অনেক ছাত্র-ছাত্রী পড়তে আসে।

আর এটা অনেক প্রাইভেট শিক্ষকরা পছন্দ করেন না। যার কারণে তারা আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ ছড়িয়ে দিচ্ছে।

সেই সাথে তারা রাতের আধারে বিভিন্ন এলাকায় পোস্টারিং করছে। বিষয়টি নিয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ ব্যাপারে থানার ওসি সোহরাওয়াদী হোসেন পোস্টারিংয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, লোকমুখে বিষয়টি অবহিত হওয়ার পর পুলিশ তদন্ত শুরু করেছেন।

তবে কোনো ছাত্রীকে অনৈতিক কাজ করেছে এমন অভিযোগ এখনো কেউ থানায় দেয়নি। সম্পাদনা : আল আমিন 

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়