শিরোনাম
◈ ঢাকায় এসেছেন চীনের কমিউনিস্ট পার্টির মিনিস্টার লিউ জিয়ানচাও  ◈ রাজনৈতিক প্রতিহিংসায় খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে যেতে দেয়া হচ্ছে না: মির্জা ফখরুল ◈ নবনিযুক্ত সেনা প্রধানের কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর ◈ বেগম খালেদা জিয়ার হৃদযন্ত্রে পেসমেকার বসানো হয়েছে  ◈ রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নবনিযুক্ত সেনাবাহিনী প্রধানের সৌজন্য সাক্ষাৎ ◈ গ্যাসের উৎপাদন বৃদ্ধির পরিকল্পনা ও বাজেটে বরাদ্দ কমানো স্ববিরোধী: সিপিডি ◈ সিলেটে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি, খুলছে পর্যটন কেন্দ্র ◈ পুলিশ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের চিঠি স্বাধীন সাংবাদিকতার প্রতি হুমকি: বিজেসি  ◈ দেশের প্রতিটি অর্জনে নেতৃত্ব দিয়েছে আওয়ামী লীগ: প্রধানমন্ত্রী ◈ এনবিআর সদস্য মতিউরের বিরুদ্ধে তদন্তে দুদক

প্রকাশিত : ২১ মে, ২০২৪, ০৮:১৪ রাত
আপডেট : ২১ মে, ২০২৪, ০৮:১৪ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

জল্লাদের কবলে পড়ে আর একটু হলেই মরতে বসছিলাম: গোলাম মাওলা রনি

রিয়াদ হাসান: [২] পটুয়াখালী-৩ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য গোলাম মাওলা রনির ব্যক্তিগত গাড়িতে হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পুষ্টি ও খাদ্য বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে। 

[৩] কে বা কারা এ হামলা করেছে তা এখনো জানা যায়নি।

[৪.১] হামলার ঘটনার বর্ণনা দিয়ে গোলাম মাওলা রনি তার ভেরিফাইড ফেসবুক ওয়ালে  লেখেন, প্রাণের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে আমার প্রাণের ওপর আঘাত আসবে, অমন চিন্তা কোনোদিন মাথায় ঢোকেনি। 

[৪.২] রাত-বিরেতে একাকী, পায়ে হেঁটে বা রিকশা বা উবারের মোটরসাইকেলে করে মনের আনন্দে দোয়েল চত্বর হয়ে কখনো টিএসসি বা কখনো শহীদ মিনার হয়ে নীলক্ষেত দিয়ে বাসায় ফিরেছি। অফিসে আসার ক্ষেত্রেও সর্বদা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস হয়ে আসতেই শান্তি অনুভব করি।

[৪.৩] আমার গাড়ি যখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মেট্রোরেলের স্টেশন পাড়ি দিয়ে পুষ্টিবিজ্ঞান বিভাগের উল্টো দিক দিয়ে যাচ্ছিল ঠিক তখন ইউ টার্ন নেওয়ার জায়গায় ৪-৫ জন যুবক হাতুড়ি এবং আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে আমার গাড়ির ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ল। হাতুড়ি দিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে গাড়ির গ্লাস ভেঙে ফেলল। 

[৪.৪] হতচকিত ড্রাইভার প্রথমে গাড়ি ব্রেক করলেন। তারপর আবার দ্রুত টান মেরে জল্লাদদের কবল থেকে বাঁচার চেষ্টা করলেন। হাতুড়ি বাহিনী পেছনে ছুটল আর অকথ্য ভাষায় গালাগাল দিতে লাগল। অফিসে এসে আমি বিষয়টি আইন-শৃঙ্খলাবাহিনীকে জানালাম। তারা বেশ আন্তরিকতা নিয়ে প্রতিকারের আশ্বাস দিলেন। আমি ছাত্রলীগ সভাপতি সাদ্দামকেও ফোন করে ঘটনা জানালাম। তিনিও সান্ত্বনা দিলেন।

[৫] গোলাম মাওলা রনি আরও বলেন, আমার কপালে আগামী দিনে কি ঘটবে তা আমি জানি না। এটা নিয়ে আমার কোনো উদ্বেগ বা উৎকণ্ঠাও নেই। কারণ আমি জন্ম থেকেই ছন্নছাড়া মানুষ। জীবনের প্রতি মায়া, বেঁচে থাকার স্বপ্ন বা কোনোকিছু পাওয়ার লোভ কোনোদিন আমাকে তাড়িত করেনি। সুতরাং মরে যাওয়া বা কেউ আমাকে মেরে ফেলবে এটা নিয়ে হৈচৈ করার প্রয়োজন আছে বলে মনে হয় না।

[৬] সাবেক এই সংসদ সদস্য বলেন, বর্তমানে আমার ব্যবসা বাণিজ্য প্রায় বন্ধ। চলমান দুর্বিষহ সময়, চারদিকের হাহাকার, অভাব অভিযোগ, মানুষের আর্তনাদ ইত্যাদি বিষয় আমাকে যেভাবে আহত করে, সেখানে কেউ যদি কষ্ট করে আমাকে মারতে আসে এবং মেরে ফেলে তাহলে অনেক ঝামেলা থেকেই বেঁচে যাই। সম্পাদনা: সমর চক্রবর্তী

এসবি২

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়