শিরোনাম
◈ আদালতের আদেশ তো শিক্ষার্থীদের পক্ষেই, তাহলে কার বিপক্ষে আন্দোলন: ওবায়দুল কাদের ◈ গণতন্ত্রের জন্যও শিক্ষার্থীদের লড়াই করার আহ্বান আমির খসরুর ◈ চাল কেজিতে ২ থেকে ৫ টাকা, সবজি ১৫ থেকে ২০ টাকা বেড়েছে ◈ কোটাবিরোধীরা পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা শনিবার ◈ ৫ শতাংশ কোটা পুনর্বহালের দাবিতে আন্দোলনে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর সদস্যরা ◈ আনোয়ারা-ফৌজদারহাট পাইপলাইন মেরামত সম্পন্ন, কমবে গ্যাস সংকট ◈ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চীন সফরে বাংলাদেশ, ভারত ও চীন তিনদেশই খুশি ◈ আইনশৃঙ্খলার অবনতি ঘটালে বরদাশত করা হবে না: ডিএমপি কমিশনার ◈ কোটা আন্দোলনকারীরা ঘরে ফিরে যাবে বলে আশাবাদ আইনমন্ত্রীর ◈ অতি বৃষ্টিতে রাজধানীর বেশিরভাগ এলাকায় হাঁটুপানি, জনজীবন বিপর্যস্ত

প্রকাশিত : ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২৩, ১১:০৪ দুপুর
আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২৩, ০৪:০২ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

স্বপ্নপূরণে হেলিকপ্টারে চড়ে গ্রামের বাড়িতে যুবক

হেলিকপ্টারে চড়ে নিজ এলাকায় সৌদি প্রবাসী

শাহাজাদা এমরান, কুমিল্লা: [২] শখের বশে মানুষ কতো কিছুই না করে। খরচ করে লাখ লাখ টাকা। মানুষ ভেদে সৌখিনতাও হয় ভিন্ন ভিন্ন। আবার সাধ ও সাধ্যের মধ্যে শখের ধরনও হয় আলাদা আলাদা।

[৩] বৃহস্পতিবার (২১ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টায় তেমনি এক শৌখিন মানুষ নিজের স্বপ্ন পূরণ এবং এলাকাবাসীকে আনন্দ দেওয়ার জন্য হেলিকপ্টারে চড়ে নিজ এলাকায় আসেন সৌদি প্রবাসী আবুল কাসেম খাঁন। তিনি কুমিল্লা জেলা বরুড়া উপজেলার ভাউকসার ইউনিয়নের শৈলখালী গ্রামের হাজী জয়নাল আবেদীনের ছেলে। তার সঙ্গে আসেন তার কফিল (মালিক) আব্দুল বাতেন। 

[৪] এবার তার বাড়ির ফেরার গল্পটি সিনেমার মতোই। হাজার হাজার উৎসুক মানুষ ভিড় জমায় হেলিকপ্টার ও তাকে দেখার জন্য।

[৫] বৃহস্পতিবার সকাল  ১০টায় মুগগাঁও আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে সবুজ সমারোহের মাঝখানে তৈরি হয় হেলিপ্যাড। দল বেঁধে স্কুল শিক্ষার্থী ও গ্রামবাসীর জনসমাগম। মুগগাঁও গ্রামে আকাশে ভেসে বেড়ায় হেলিকপ্টারের শব্দ। উৎসুক নারী-পুরুষ, শিক্ষার্থী ও শিশু তাকিয়ে আকাশের দিকে। সে হেলিকপ্টার থেকে নেমে আসলেন শৈলখালী গ্রামের প্রবাসী আবুল কাসেম খাঁন ও তার কফিল আব্দুল বাতেন।  হৈ চৈ পড়ে গেল পুরো এলাকায়। 

[৬] প্রবাসী আবুল কাসেম খাঁনের কফিল আব্দুল বাতেন বাংলাদেশ ঘুরতে আসেন। তিনি ৫ দিনের সফরে বাংলাদেশে আসেন। তার গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য ভালো লাগে। তিনি আরও কয়েকবার বাংলাদেশে এসেছেন। সৌদি আরবের জোবায়েল শহরের নাগরিক আব্দুল বাতেন তিনি একজন ব্যবসায়ী। 

[৭] প্রবাসী আবুল কাসেম খাঁন বলেন, আমি দীর্ঘদিন যাবৎ প্রবাসী। আমার নিজের স্বপ্ন পূরণ এবং গ্রামের মানুষ ও আমার শুভাকাঙ্ক্ষীদের মাঝে আনন্দ-উচ্ছ্বাস ছড়িয়ে দিতে আমি ব্যতিক্রমীভাবে বাড়ি ফিরি। 

[৮] সৌদিআরবের নাগরিক আব্দুল বাতেন বলেন, আমি বাংলাদেশে কয়েকবার এসেছি। বাংলাদেশ আমার পছন্দের একটি দেশ। ঘুরাফেরা জন্য এবং গ্রাম বাংলা ঐতিহ্য দেখার জন্য এই দেশে আসি। নিজের শখ পূরণের পাশাপাশি আমি আমার সাধ্য মোতাবেক ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ও বাংলাদেশের মানুষের পাশে থাকি। সার্বিক সহযোগিতা করি। ইনশাআল্লাহ ভবিষ্যতেও করবো। সম্পাদনা: হ্যাপী

প্রতিনিধি/এইচএ

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়