শিরোনাম

প্রকাশিত : ২৫ জানুয়ারী, ২০২৩, ০৪:৪৬ দুপুর
আপডেট : ২৫ জানুয়ারী, ২০২৩, ০৪:৪৬ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কে ৬ কুমির ছানার জন্ম

বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কে ৬ কুমির ছানার জন্ম

এ এইচ সবুজ, গাজীপুর: গাজীপুর জেলার শ্রীপুরে অবস্থিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে প্রথমবারের মতো ছয়টি কুমির ছানার জন্ম হয়েছে। গত বছরের ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে ছানাগুলোর জন্ম হলেও পার্ক কর্তৃপক্ষ মঙ্গলবার তা গণমাধ্যমে প্রকাশ করেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম বলেন, পার্ক প্রতিষ্ঠার পর বেশ কয়েকবার কুমির ডিম দিলেও তাতে ছানা ফুটেনি। তবে আশার আলো দেখা যায় গত ডিসেম্বরে। লোনাপানির একটি কুমির ডিম দিলে তা থেকে ছয়টি ছানার জন্ম হয়। জন্মের পর পরই ছানাগুলো বেষ্টনীর জলাধারে নেমে যায় বলেও জানান তিনি।
সাফারি পার্ক কর্তৃপক্ষ জানায়, পার্কে বর্তমানে ১০টি লোনাপানির কুমির ও ছয়টি মিঠাপানির কুমির রয়েছে। যা বাংলাদেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে উদ্ধার করা। 

জানা যায়, বাংলাদেশে লোনাপানির কুমির এখন প্রায় দেখাই যায় না। ২০১৫ সালে প্রকৃিত সংরক্ষণ বিষয়ক আন্তর্জাতিক সংস্থা বাংলাদেশে লোনাপানির কুমিরকে বিপন্ন প্রজাতির প্রাণী হিসেবে তালিকাভুক্ত করেছে। লোনাপানির কুমির মাংসাশী শিকারি। এদের লেজ পেশীবহুল। এ জাতের কুমিরের জীবনকাল সাধারণত ২৫ থেকে ৭০ বছর পর্যন্ত হয়। তবে ১০০ বছর বেঁচে থাকার রেকর্ডও এ কুমিরের রয়েছে। 

মজার ব্যাপার হচ্ছে, যে ডিম বেশি তাপমাত্রা পায় তা থেকে পুরুষ ছানার জন্ম হয় আর কম তাপমাত্রা পাওয়া ডিম থেকে মেয়ে কুমিরের জন্ম হয়। তবে ছয়টি ছানার জন্ম হলেও কতগুলো টিকে থাকবে তা এখনই বলা যাচ্ছে না বলে শঙ্কা প্রকাশ করেন রফিকুল ইসলাম।

তিনি আরো বলেন,আমরা প্রাপ্তবয়স্ক কুমিরগুলোকে খাবার হিসেবে মুরগী দিয়ে থাকি। ছানাগুলো জন্মের পর জলাধার থেকেই খাবার গ্রহণ করছে । জলাধার থেকে শেওলা ও ছোটমাছ খাবার হিসেবে গ্রহণ করছে তারা। সম্পাদনা: অনিক কর্মকার

প্রতিনিধি/একে/জেএ

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়