শিরোনাম
◈ আগামী মার্চে ঢাকায় বাংলাদেশ বিজনেস সামিট ◈ ঘন কুয়াশায় দৌলতদিয়া-পাটুরিয়ায় ফেরি চলাচল বন্ধ ◈ নো ম্যানস ল্যান্ডে থাকা রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশ প্রবেশে নিবন্ধন প্রক্রিয়া শুরু ◈ পুলিশ কর্মকর্তার গুলিতে আহত উড়িষ্যার মন্ত্রীর মৃত্যু ◈ কারাগারে অসুস্থ রিজভীর শারীরিক অবস্থার অবনতি ◈ যুক্তরাষ্ট্র ও ইইউ’র উদ্দেশ্যে তুরস্কের পাল্টা ভ্রমণ সতর্কতা ◈ প্রমোদতরী গঙ্গা বিলাস কলকাতায়, মঙ্গলবার আসবে বাংলাদেশে ◈ ভোটের অধিকার ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে আমরা একমত হয়েছি: মির্জা ফখরুল  ◈ মায়ের কাছেই থাকবে দুই জাপানি শিশু, মামলা খারিজ ◈ নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে জেরুজালেমে হাজার হাজার মানুষের বিক্ষোভ

প্রকাশিত : ০৩ ডিসেম্বর, ২০২২, ১১:৩৮ রাত
আপডেট : ০৪ ডিসেম্বর, ২০২২, ০৩:৪৭ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

জেলে থেকেই কুমিল্লার ছিনতাই সিন্ডিকেট নিয়ন্ত্রণ করে ভণ্ড নয়ন

ভণ্ড নয়ন

শাহাজাদা এমরান: কুমিল্লার আলোচিত ছিনতাইকারী ভণ্ড নয়ন এখন জেলে। তবে তার শিষ্যরা কুমিল্লার ছিনতাইয়ের জগৎ নিয়ন্ত্রণে নিয়ে নতুন নতুন পরিকল্পনায় এগিয়ে যাচ্ছে। তবে তাদের এগিয়ে যাওয়ার পথে বাঁধ সাথে পুলিশ।

শুক্রবার সন্ধ্যায় নগরীর বিসিক শিল্পনগরী এলাকা থেকে বিপুল পরিমান দেশীয় অস্ত্র, ককটেল ও মাদকসহ নয়ন ভণ্ডের চার সদস্যকে গ্রেফতার করে। তাদের কাছ থেকে চাঞ্চল্যকর তথ্য পায় পুলিশ। তাদের জমাকৃত অস্ত্র দিয়ে বড় পরিসরে ছিনতাইয়ের পরিকল্পনা করা হয়েছিলো। 

নয়ন হোসেন ওরফে ভণ্ড নয়নের বিরুদ্ধে  কুমিল্লা কোতয়ালী ও সদর দক্ষিণ মডেল থানায় বিভিন্ন অপরাধে ৭টি মামলা রয়েছে। বুড়িচং উপজেলার কংশনগর এলাকার বাসিন্দা মন্টু মিয়ার ছেলে নয়ন। তবে বাড়ি বুড়িচং হলেও ভণ্ড নয়ন নগরীর ধর্মপুর ষ্টেশন রোডের বাসিন্দা। 

শনিবার বেলা সাড়ে ১২ টায় কুমিল্লা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার আবদুল মান্নান বলেন, পুলিশের অভিযানে বিপুল অস্ত্রসহ চারজন যুবককে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলো বাগিচাগাঁও  এলাকার নয়ন চক্রবর্তী (২৩), অশোকতলা বিসিক এলাকার রবিউল হোসেন (২২), একই এলাকার ইয়াছিন হোসেন মাসুম, দৌলতপুর কলনী এলাকার গোলাম হোসেন সজিব (২২)। তারা সবাই ভণ্ড নয়নের অনুসারী। গ্রেফতারের সময় তাদের কাছ থেকে বিপুল পরিমান দেশীয় অস্ত্র, ১৪ টি ককটেল ও ২শ পিস ইয়াবা জব্দ করা হয়। 

পুলিশ সুপার আবদুল মান্নান বলেন, যে চারজন যুবকেক গ্রেফতার করা হয়েছে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা স্বীকার করে এসব অস্ত্র দিয়ে তারা বড় ছিনতাইয়ের পরিকল্পনা ছিলো। পুলিশ এখন খুঁজছে কারা এই ককটেল সরবরাহ করে। তাদেরকে উৎস খুঁজে গ্রেফতারের জন্য আমরা জেলা পুলিশ বদ্ধ পরিকর। 

প্রতিনিধি/এসএ

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়