শিরোনাম
◈ তিস্তায় নৌকাডু‌বিতে শিশু নিহত ◈ নৌকাডুবিতে নিখোঁজ অভিবাসীর খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে ইতালির কোস্টগার্ড ◈ উড়তে থাকা যুক্তরাষ্ট্রকে মাটিতে নামিয়ে আনলো দক্ষিণ আফ্রিকা ◈ ১৪ দিনে রেমিট্যান্স এলো ১৬৪ কোটি ডলার ◈ শরীয়তপুরে চেম্বার থেকে আইনজীবীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার ◈ বিশ্বকাপের সুপার এইট শুরু, শুক্রবার অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ   ◈ সেনাবাহিনী প্রধানের ৯, ১৭ ও ৩৩ পদাতিক ডিভিশনে বিদায়ী দরবার ◈ নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণে শেখ হাসিনা শুক্রবার দিল্লি যাচ্ছেন, ২২ জুন শীর্ষ বৈঠক ◈ দেশ ছাড়িনি, চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে আছি: আছাদুজ্জামান মিয়া  ◈ আগ্রাসনের বিরুদ্ধে উত্তর কোরিয়া-রাশিয়া একে অপরকে সাহায্য করবে, কৌশলগত অংশীদারত্ব চুক্তি সই

প্রকাশিত : ১১ জুন, ২০২৪, ০২:০৫ দুপুর
আপডেট : ১১ জুন, ২০২৪, ১১:৪০ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌপথে যাতায়াত করলেই মিয়ানমার থেকে গুলি

ফাইল ছবি

জিয়াবুল হক, টেকনাফ: [২] কক্সবাজারের সেন্টমার্টিন থেকে টেকনাফগামী দুটি ট্রলার ও কয়েকটি স্পিডবোটকে লক্ষ্য করে মিয়ানমার থেকে আবারও গুলিবর্ষণ করা হয়েছে। মিয়ানমার থেকে গুলি ছোড়ার কারণে গত ৬ দিন ধরে টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌরুটে সব ধরনের নৌ-যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

[৩] মঙ্গলবার (১১ জুন) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নাফনদীর কিনারায় নাইক্ষ্যংদিয়া এলাকায় এ গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে গত ৬ দিন ধরে চলছে একই ধরনের ঘটনা।

[৪] সেন্টমার্টিন ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মুজিবুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে সেন্টমার্টিন থেকে টেকনাফগামী দুটি ট্রলার ও কয়েকটি স্পিডবোটকে লক্ষ্য করে মিয়ানমার থেকে আবারও গুলি চালানো হয়। এতে ওই নৌযানগুলো টেকনাফ না গিয়ে আবার সেন্টমার্টিনে ফিরে আসে। গত ৬ দিন ধরে মিয়ানমার থেকে এভাবে গুলি ছোড়া হচ্ছে। এতে আতঙ্কে টেকনাফ-সেন্টমার্টিনে যাত্রী ও পণ্যবাহী সব ধরনের নৌযান চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। এ অবস্থায় দেশের একমাত্র প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিনের বাসিন্দারা চরম সংকটে রয়েছেন।

[৫] জানা যায়, টেকনাফ উপজেলার থেকে বিছিন্ন সেন্টমার্টিন দ্বীপে বসবাস করেন ১০ হাজারের বেশি বাসিন্দা। বিচ্ছিন্ন দ্বীপ হওয়ায় বাসিন্দাদের খাদ্য ও নিত্যপণ্য আসে টেকনাফ থেকে। আর নৌযানই যাতায়াতের একমাত্র মাধ্যম। টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌরুটে প্রতিদিন ট্রলারে করে দ্বীপের বাসিন্দারা আসা-যাওয়া করে। একই সঙ্গে খাদ্যপণ্য পরিবহনেও ব্যবহৃত হয় ট্রলার দিয়ে।

[৬] উল্লেখ্য, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি থেকেই সংঘাত চলছে মিয়ানমারের অভ্যন্তরে। এর জেরে ধরে এখন টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌরুটে নাফনদীর নাইক্ষ্যংদিয়া পয়েন্টে মিয়ানমার থেকে ছোড়া হচ্ছে গুলি। এরই মধ্যে গেলো ৫ জুন সেন্টমার্টিন থেকে ফেরার সময় নির্বাচনী সরঞ্জাম ও কর্মকর্তাদের বহনকারী নৌযানে গুলি ছোড়া হয় মিয়ানমার থেকে। এতে ট্রলারটি ক্ষতিগ্রস্ত হলেও কেউ হতাহত হননি। এরপর ৮ জুন পণ্যবাহী ট্রলারে আবারও গুলি করা হয়। এতে কেউ হতাহত না হলেও ট্রলারটিতে সাতটি গুলি লাগে।

[৭] সেন্টমার্টিন স্পিড বোট মালিক সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক খোরশেদ আলম বলেন, বোটে প্রকাশ্যে গুলি করতে দেখে মানুষ ভয়ে আর এ রুটে যাচ্ছেন না। তাছাড়া, ওই পথ ছাড়া সেন্টমার্টিনে আসার বিকল্প কোনও ব্যবস্থা বা রুটও নেই। প্রতিদিন সেন্টমার্টিন-টেকনাফ নৌ রুটে ৪টি ট্রলার ও ৬টি স্পিড বোটের মাধ্যমে শতাধিক মানুষ আসা-যাওয়া করার পাশাপাশি খাদ্য ও নিত্যপণ্য বহন করা হতো।

[৮] এবিষয়ে টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আদনান চৌধুরী জানান, সম্প্রতি সময়ে পাশ্ববর্তী দেশ  মিয়ানমার থেকে ট্রলার ও স্পিড বোটকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়া হচ্ছে। তাই ওই নৌরুটে নৌযান চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে জরুরি ভিত্তিতে শাহপরীর দ্বীপ অংশ থেকে বিকল্প পদ্ধতির মাধ্যমে বঙ্গোপসাগর হয়ে সেন্টমার্টিন যাওয়া যায় কি-না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

প্রতিনিধি/একে

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়