শিরোনাম

প্রকাশিত : ২৯ জুন, ২০২২, ১১:৫৫ রাত
আপডেট : ২৯ জুন, ২০২২, ১১:৫৫ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

জুডো ফেডারেশনের সহকারী কোচ হিসেবে মনোনীত জবি শিক্ষার্থী আকিব

আকিব হায়দার ইমন

অপূর্ব চৌধুরী: বাংলাদেশ জুডো ফেডারেশনের সহকারী কোচ হিসেবে মনোনীত হয়েছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগের ২০১৮-১৯ সেশনের শিক্ষার্থী আকিব হায়দার ইমন। তার এমন অর্জনে উচ্ছ্বসিত শিক্ষক ও সহপাঠী সহ সংশ্লিষ্ট সবাই।

বুধবার (২৯ জুন) বিষয়টি নিশ্চিত করে আকিব হায়দার ইমন। এর পূর্বে গত ১৯ জুন বাংলাদেশ জুডো ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক কামরুনাহার হিরু স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতেও বিষয়টি জানানো হয়। 

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এ বছরের ১৫-২০ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত জুডো প্রশিক্ষক প্রশিক্ষণ কোর্সে অংশগ্রহণকারী প্রশিক্ষকদের মধ্য হতে এনএসসি টাওয়ার ও বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে প্রশিক্ষণ প্রদানের জন্য জনাব আকিব হায়দারকে সহকারী প্রশিক্ষক হিসেবে মনোনীত করা হয়েছে।

সহকারী কোচ হিসেবে মনোনীত শিক্ষার্থী আকিব হায়দার ইমন বলেন, প্রথমে মহান আল্লাহর কাছে শুকরিয়া জ্ঞাপন করছি। পাশাপাশি ধন্যবাদ জানাচ্ছি বাংলাদেশ জুডো ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক কামরুন নাহার হীরু এবং জুডো ফেডারেশনের সকল কার্যনির্বাহী সদস্যদের। কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি আমার বাবা মায়ের প্রতি যাদের দোয়ায় আজ আমি এতদূর আসতে পেরেছি। 'জুডো শান্তির জন্য'। জুডোর প্রতি আগ্রহ অলসতাকে দূরে ঠেলে আজ এই পর্যায়ে আসতে সাহায্য করেছে।

এই শিক্ষার্থী আরও বলেন, আমি শারীরিক ও মানসিকভাবে দৃঢ় মনোবল নিয়ে এভাবে এগিয়ে যেতে চাই। আমি ধন্যবাদ জানাচ্ছি আমার বিকেএসপি কোচ আবু বকর সিদ্দিক, ফারহানা হালিম ও জাহাঙ্গীর আলম রনিকে। তারাই আমার সুপ্ত জুডো প্রতিভার কারিগর।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আকরাম উজ্জামান বলেন, আকিবের এই অর্জন বিভাগ এবং সার্বিকভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্যই গর্বের বিষয়। সে অল্প সময়ে এত বড় অর্জন করেছে। তার এই সাফল্যে বিভাগের বাকি শিক্ষার্থীরাও অনুপ্রেরণা, উৎসাহ পাবে। আমি তার সফলতা কামনা করি। 

শরীর চর্চা শিক্ষা কেন্দ্রের সহকারী পরিচালক গৌতম কুমার দাস বলেন, আকিবের অনেক আগ্রহ ও আন্তরিকতার ফলস্বরূপ সে এই জায়গায় পৌঁছাতে পেরেছে। ধারাবাহিক প্রচেষ্টায় সে একাধিক ধাপ পার করে এই স্থানে যেতে পেরেছে৷ আশা করি সামনে আরও অর্জন করবে সে। এটি আমাদের সবার জন্য গর্বের বিষয়। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রকল্যাণ পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. আইনুল ইসলাম বলেন, সহশিক্ষা কার্যক্রমে শিক্ষার্থীদের এমন অর্জন প্রশংসার বিষয়। শিক্ষার্থীদেরকে সহশিক্ষা কার্যক্রমে উদ্ধুদ্ধ করতে ও অর্জন বাড়াতে আমার পক্ষ থেকে সবসময় সাপোর্ট থাকবে। আমি আকিবের সফলতা কামনা করছি।

  • সর্বশেষ